default-image

দেশের কর্মক্ষম জনগোষ্ঠীর জন্য পর্যাপ্ত ও মানসম্পন্ন কর্মসংস্থানের সুযোগ ও পরিবেশ তৈরির লক্ষ্যে বিশ্বব্যাংক ২৫০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের ঋণসহায়তা প্রদান করবে। এ লক্ষ্যে গত বৃহস্পতিবার বিশ্বব্যাংক ও বাংলাদেশ সরকারের মধ্যে ‘থার্ড প্রাগমেটিক জবস ডেভেলপমেন্ট পলিসি ক্রেডিট (ডিপিসি-৩)’–বিষয়ক একটি ঋণচুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে। চুক্তিতে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের (ইআরডি) সচিব ফাতিমা ইয়াসমিন ও বিশ্বব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর মার্সি টেমবন নিজ নিজ পক্ষে স্বাক্ষর করেন।

অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, দেশের কর্মক্ষম জনগোষ্ঠীর জন্য পর্যাপ্ত ও মানসম্পন্ন কর্মসংস্থানের সুযোগ ও পরিবেশ তৈরিসহ সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগ বা সংস্থার সংশ্লিষ্টতায় কিছু সহায়ক নীতি–কৌশল ও বিধিবিধান সংস্কার এবং আধুনিকায়নের উদ্যোগ নেওয়া হয়। প্রস্তাবিত সংস্কার পরিকল্পনা বাস্তবায়নে বিশ্বব্যাংক ২০১৮-১৯ অর্থবছর থেকে মোট তিন বছরে ৭৫০ মিলিয়ন ডলার ঋণ প্রদানে সম্মত হয়। এর আওতায় বৃহস্পতিবার শেষ কিস্তির জন্য ২৫০ মিলিয়ন ডলারের চুক্তি স্বাক্ষর হলো। এ পরিকল্পনার মূল উদ্দেশ্য হলো বিনিয়োগ ও ব্যবসা-বাণিজ্যের পরিবেশ আধুনিকায়ন, শ্রমিকদের সুরক্ষা প্রদান ও অভিঘাত মোকাবিলায় সক্ষমতা জোরদারকরণের পাশাপাশি দুস্থ জনগোষ্ঠীর জন্য কর্মসংস্থান তৈরি করা।

বিজ্ঞাপন
খবর থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন