বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

যাঁদের শ্রুতলেখক প্রয়োজন হবে, তাঁদের ৮ নভেম্বরের মধ্যে আবেদন করতে হবে। শ্রুতলেখক পেতে প্রার্থীদের আবেদন করার এ আহ্বান আজ মঙ্গলবার জানিয়েছে পিএসসি। পিএসসির পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (ক্যাডার) নুর আহমদ স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে শ্রুতলেখক পেতে আবেদন করার এ আহ্বান জানানো হয়েছে।

default-image

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, শ্রুতলেখকের চাহিদা জানিয়ে ৮ নভেম্বরের মধ্যে অফিস চলাকালে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (ক্যাডার), বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন সচিবালয়, প্রধান কার্যালয়, আগারগাঁও, শেরেবাংলা নগর, ঢাকার দপ্তরে আবেদন করার জন্য অনুরোধ করা যাচ্ছে।

আবেদনপত্রের সঙ্গে নিম্নলিখিত কাগজ জমা দিতে হবে—
ক. অনলাইন আবেদনপত্রের (BPSC Form-1) কপি ও প্রবেশপত্র।
খ. প্রার্থীর দুই কপি পাসপোর্ট সাইজের সত্যায়িত ছবি।
গ. শ্রুতলেখকের প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে সিভিল সার্জন কর্তৃক প্রদত্ত ডাক্তারি প্রত্যয়নপত্র।
ঘ. সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কর্তৃক প্রদত্ত প্রতিবন্ধী পরিচয়পত্রের সত্যায়িত কপি।

বর্ণিত কাগজপত্রসহ নির্ধারিত তারিখের মধ্যে (৮ নভেম্বর) অফিস চলাকালে আবেদন না করলে শ্রুতলেখক নিয়োগ করা হবে না। শ্রুতলেখকের জন্য আবেদনকারী প্রার্থীকে কেবল কর্ম কমিশন থেকে প্রদত্ত অনুমোদিত শ্রুতলেখকের সহায়তায় পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে।

৪১তম বিসিএসের আবশ্যিক বিষয়ের লিখিত পরীক্ষা ২৯ নভেম্বর থেকে ৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে। এই বিসিএসে প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন ২১ হাজার ৫৬ জন। গত ১ আগস্ট প্রিলিমিনারির ফল প্রকাশিত হয়।

খবর থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন