বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

১। কাজের তালিকা তৈরি করুন এবং কাজকে ছোট ছোট ভাগে বিভক্ত করুন

আপনার প্রোজেক্টের জন্য যে যে কাজ করতে হবে, তার একটি তালিকা তৈরি করুন এবং পুরো কাজটিকে ছোট ছোট ভাগে বিভক্ত করুন। অপ্রয়োজনীয় কোনো কাজ বাদ দেওয়ার সুযোগ থাকলে বাদ দিয়ে দিন। যখন আপনি পুরো কাজটিকে ছোট ছোট ভাগে বিভক্ত করবেন, তখন প্রতিটি ছোট অংশ আলাদাভাবে গুরুত্ব পাবে এবং কম সময়ে সুসম্পন্ন করা যাবে।

২। বেশি গুরুত্বপূর্ণ কাজকে অগ্রাধিকার দিন

আপনি যখন আপনার পুরো প্রজেক্টের কাজের তালিকা তৈরি করবেন, তখন এমন কিছু কাজ থাকবে, যা করা আপনার জন্য বেশি গুরুত্বপূর্ণ। সেই বেশি গুরুত্বপূর্ণ কাজগুলোর প্রতি বিশেষভাবে লক্ষ্য রাখুন এবং সেই কাজগুলো অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে সুসম্পন্ন করুন।

আপনার কাজগুলোকে তিনটি ভাগে ভাগ করে নিতে পারেন। প্রথমত, কাজটি গুরুত্বপূর্ণ এবং এখনই করা উচিত। দ্বিতীয়ত, কাজটি গুরুত্বপূর্ণ, কিন্তু এখন না করলেও সমস্যা নেই এবং তৃতীয়ত, কাজটি খুব একটা গুরুত্বপূর্ণ নয়, সময় থাকলে পরে করা যেতে পারে।

৩। মাথা ঠান্ডা রেখে গুছিয়ে কাজ করুন

অনেকেই চাপের মধ্যে কাজ করতে যেয়ে মাথা গরম করে ফেলেন এবং পুরো কাজটিকে হযবরল করে ফেলেন বা গুলিয়ে ফেলেন। কিন্তু তা করলে ভালোর পরিবর্তে আরও খারাপ হবে। তাই কাজের চাপ চলাকালীন অবস্থায় মাথা ঠান্ডা রাখতে হবে এবং নজর রাখতে হবে, যেন প্রতিটি কাজ গোছানো হয়।

৪। নিজের যত্ন নিন এবং পর্যাপ্ত বিশ্রাম ও ঘুম নিশ্চিত করুন

চাপের মধ্যে কাজ করার সময় নিজের যত্ন নিতে হবে। খাবার ঠিকমতো খেতে হবে। শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্যের দিকেও নজর রাখতে হবে। মনে রাখতে হবে, স্বাস্থ্য ও মন—এ দুটির যেকোনো একটিও খারাপ হলে আপনার পক্ষে চাপ সামলে কাজ করা কঠিন হবে। তাই নিজের প্রতি যত্ন নিতে হবে এবং পর্যাপ্ত পরিমাণে বিশ্রাম ও ঘুম নিশ্চিত করতে হবে।

আরেকটি বিষয় মাথায় রাখতে হবে যে বিশ্রামের সময় কাজের কথা না ভাবাই ভালো। এতে আপনার বিশ্রাম বা ঘুমের ব্যাঘাত ঘটবে, যা পরের দিন আপনার কাজের ওপর বাজে প্রভাব ফেলবে। তাই চেষ্টা করুন বিশ্রামের সময় কাজের কথা না ভেবে একটি পরিপূর্ণ বিশ্রাম বা ঘুম নিশ্চিত করতে।

চাকরির সাক্ষাৎকারে চাপের মধ্যে কাজ করতে পারেন কি না, এ প্রশ্নের উত্তর কী হওয়া উচিত

চাকরির সাক্ষাৎকারে চাপের মধ্যে কাজ করতে পারার প্রশ্নটির সন্তোষজনক উত্তর দিতে পারলে চাকরি পাওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যেতে পারে। ইন্টারভিউ বোর্ডে সাধারণভাবে উত্তর না দিয়ে পুরো বিষয়টি বর্ণনা করে সুনির্দিষ্টভাবে প্রশ্নটির উত্তর দিতে পারেন। আপনি উত্তরটিকে তিনটি ভাগে ভাগ করে নিতে পারেন।


১। পরিস্থিতি বর্ণনা

আপনি প্রথমেই এমন একটি পরিস্থিতির কথা উল্লেখ করতে পারেন, যখন আপনাকে অনেক চাপের মধ্য দিয়েও নির্ধারিত সময়ে একটি কাজ শেষ করতে হয়েছিল।

যেমন ধরুন, আপনি যখন আপনার টিম নিয়ে নির্ধারিত সময়ে কোনো একটি প্রজেক্ট শেষ করতে চাচ্ছিলেন, ঠিক ওই সময় আপনার টিমের দুই সদস্যের দুর্ঘটনা ঘটেছিল। ফলে আপনার টিমের দুই সদস্য উপস্থিত থাকতে পারেননি। কিন্তু তারপরও নির্ধারিত সময়ে ওই প্রজেক্ট সুসম্পন্ন করতে আপনাকে অতিরিক্ত চাপ মাথায় নিয়ে কাজ করতে হয়েছিল।

২। আপনার ভূমিকা ও গৃহীত পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করুন

এই অংশে পুরো কাজটি সম্পন্ন করার ক্ষেত্রে আপনি ব্যক্তিগতভাবে কতটুকু গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পেরেছিলেন এবং কী কী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছিলেন, তা সুনির্দিষ্টভাবে উল্লেখ করুন। কারণ, এ অংশ থেকেই বোঝা যাবে, কঠিন পরিস্থিতি সামলানোর ক্ষেত্রে আপনি নিজে কতটা দায়িত্বশীল এবং নিজে কঠিন পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য কতটা উপযুক্ত।

উদাহরণ হিসেবে বলা যায়, আপনি কম সদস্য নিয়েও নির্ধারিত সময়ের মধ্যে প্রজেক্টটি শেষ করার জন্য পরিকল্পনায় কিছু পরিবর্তন এনেছিলেন এবং সময়ের সদ্ব্যবহার নিশ্চিত করেছিলেন। কাজ দ্রুত সুসম্পন্ন করার জন্য প্রযুক্তিগত কিছু সহায়তা নিয়েছিলেন এবং সিনিয়রদের সঙ্গে কথা বলে কাজটিকে আরও সুশৃঙ্খল করেছিলেন।

এখানে উল্লেখ করতে পারেন, টিম লিডার হিসেবে আপনি একাধারে যেমন পুরো প্রোজেক্টটি নির্ধারিত সময়ের মধ্যে দ্রুত শেষ করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছিলেন, তার পাশাপাশি টিমের প্রত্যেক সদস্যকে উজ্জীবিত রাখার মতো গুরুত্বপূর্ণ কাজটিও আপনি করেছিলেন। এভাবে পরিস্থিতি অনুযায়ী নিজের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণভাবে উপস্থাপন করতে পারেন।


৩। ফলাফল উল্লেখ করুন

আপনি প্রথম পর্যায়ে পরিস্থিতি উল্লেখ করেছেন এবং দ্বিতীয় পর্যায়ে আপনার ভূমিকা ও গৃহীত পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করেছেন। এ পর্যায়ে আপনার গৃহীত পদক্ষেপের ফলে কী ফলাফল হয়েছিল, তা উল্লেখ করতে হবে।

আপনি যদি নির্ধারিত সময়ের মধ্যে প্রজেক্ট শেষ করে থাকেন, তা এখানে উল্লেখ করুন। এ প্রজেক্ট থেকে আপনি কী শিখেছিলেন, সেটিও উল্লেখ করতে পারেন। সেই শিক্ষা পরবর্তীকালে আপনি অন্য প্রোজেক্ট সফলভাবে সুসম্পন্ন করতে কীভাবে কাজে লাগিয়েছিলেন, তা–ও উল্লেখ করতে পারেন।

তাহলে বুঝা যাবে যে আপনি চাপের মধ্যে ভালো কাজ করতে পারেন এবং আপনি কঠিন পরিস্থিতি থেকে শিক্ষা গ্রহণ করেন এবং সেই শিক্ষা পরবর্তীকালে আপনার অন্যান্য কাজেও প্রয়োগ করেন। সর্বোপরি আপনার সম্পর্কে নিয়োগকর্তার একটি ভালো ধারণা তৈরি হবে।

পরামর্শ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন