default-image

ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, ডিজিটাল দক্ষতা ছাড়া সামনের দিনে টিকে থাকা কঠিন হবে। তিনি ডিজিটাল যুগের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় তরুণ প্রজন্মকে ডিজিটাল দক্ষতা অর্জন করারও আহ্বান জানিয়েছেন। মোস্তাফা জব্বার গতকাল রোববার রাজধানীতে নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত ‘বসন্ত উৎসব’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য এ আহ্বান জানান।

‘প্রকৃতির বসন্তের আমেজের মতোই নিজের জীবনে বসন্তের আনন্দ বয়ে আনতে হবে’—এ কথা উল্লেখ করে ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী বলেন, পৃথিবীর ইতিহাসে বাঙালি এক অনন্য জাতি। বিশ্বে খুব কম জাতি আছে, যারা ভাষা, সংস্কৃতি ও জাতিসত্তা রক্ত দিয়ে রক্ষা করেছে। রক্ত দিয়ে বাঙালি নিজের রাষ্ট্র তৈরি করেছে, তার নিজস্ব সংস্কৃতিকে বিকশিত করছে, অসাম্প্রদায়িক চেতনা তুলে ধরছে। নিজেদের জীবনে বসন্ত তৈরি করে বাঙালির শৌর্য–বীর্যের গৌরব অক্ষুণ্ন রাখার জন্য তিনি দেশের তরুণ সমাজের প্রতি আহ্বান জানান।

বিজ্ঞাপন

নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির উপাচার্য আতিকুল আলমের সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে ইউনিভার্সিটিটির বোর্ড অব ট্রাস্টির চেয়ারম্যান এম এ কাশেম, সদস্য রেহুমা রহমান, বেনজির আহমেদ, আজিম উদ্দিন, সহ–উপাচার্য ইসমাইল হোসেন প্রমুখ বক্তব্য দেন।

বাঙালির জাতিসত্তার বিকাশে বসন্ত উৎসব গুরুত্বপূর্ণ এ কথা উল্লেখ করে মোস্তাফা জব্বার বলেন, ‘তরুণদের নিজেদের জীবনে বসন্ত তৈরি করতে হবে। কোভিডকালে আমরা প্রমাণ করতে পেরেছি, পৃথিবীর যেকোনো উন্নত দেশ থেকে আমরা পিছিয়ে নেই। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদৃষ্টিসম্পন্ন নেতৃত্বে পৃথিবীর যে কয়টি দেশ টিকা দিচ্ছে, তার মধ্যে বাংলাদেশ অন্যতম।’ তিনি এ সময় বলেন, দেশের শতকরা ৭২ ভাগ করোনা রোগী ঘরে বসে ডিজিটাল চিকিৎসা নিয়েছে। ডিজিটাল বাংলাদেশ কর্মসূচি পৃথিবীর কাছে একটি উন্নয়নের রোল মডেল বলে মন্ত্রী উল্লেখ করেন।

বক্তৃতাপর্ব শেষে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়।

পরামর্শ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন