default-image

ওয়েব বেইজড প্রিলিমিনারি স্ক্রিনিংয়ে একটি অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যারের মাধ্যমে প্রার্থীদের এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল এবং উচ্চতার ভিত্তিতে প্রাথমিকভাবে ১ লাখ ১৫ হাজার ৬০৩ জন প্রার্থী বাছাই করা হয়। এর মধ্যে পুরুষ ১ লাখ ৯৩৭ ও নারী ১৪ হাজার ৬৬৬ জন। তাঁদের মধ্যে ফিজিক্যাল অ্যান্ডুরেন্স টেস্টে উত্তীর্ণ হন ৩১ হাজার ৪০৫ জন। লিখিত পরীক্ষায় অংশ নেন ৩১ হাজার ২৫৪ জন। এরপর মনস্তাত্ত্বিক ও মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে প্রাথমিকভাবে ৪ হাজার প্রার্থী ট্রেইনি রিক্রুট কনস্টেবল পদে প্রাথমিকভাবে মনোনীত হয়েছেন।

সরকারের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অনুমোদনক্রমে দীর্ঘ চার দশক পর বাংলাদেশ পুলিশে কনস্টেবল পদে নিয়োগবিধি সংশোধন করা হয়। সংশোধিত নিয়োগবিধিতে ইতিমধ্যে প্রথমবারের মতো ৩ হাজার প্রার্থী নিয়োগ করা হয়েছে। এবার দ্বিতীয় দফায় নিয়োগ প্রক্রিয়া চলছে।

আইজিপি বেনজীর আহমেদ বলেন, ‘আমরা জব মার্কেট থেকে “বেস্ট অব দি বেস্ট” প্রার্থী বাছাই করতে সক্ষম হয়েছি। যাঁরা মেধা ও শারীরিক দিক থেকে অধিকতর যোগ্য। তাঁরা জনগণকে আধুনিক ও উন্নত সেবা প্রদানে সক্ষম হবেন।’

ট্রেইনি রিক্রুট কনস্টেবল পদে ৪ হাজার শূন্য পদের বিপরীতে অনলাইনে আবেদন গ্রহণ শুরু হয় গত ১ ফেব্রুয়ারি। মোট আবেদনকারী ছিলেন ১ লাখ ৯৬ হাজার ৭২১ জন।

নিয়োগ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন