default-image

কোভিড–১৯–এর কারণে কোনো কোনো প্রতিষ্ঠান বিপাকে পড়েছে, আবার কোনো কোনো প্রতিষ্ঠানের বিক্রিতে চাঙা ভাব দেখা গেছে। আর তাই এসব প্রতিষ্ঠান নতুন করে লোক নিয়োগের ঘোষণা দিচ্ছে। মহামারিতে বিক্রিতে চাঙা ভাবের কারণে জার্মান সুপারমার্কেট জায়ান্ট আলডি ব্রিটেনে চার হাজার নতুন কর্মী নিয়োগের ঘোষণা দিয়েছে। সোমবার এ ঘোষণা ছাড়াও ২০২২ সাল নাগাদ সেখানে ১০০টি নতুন স্টোর চালু করতে যাওয়ার কথা জানায় কম দামে পণ্য বিক্রির প্রতিষ্ঠানটি।

করোনায় বিমান, রেস্টুরেন্ট ও ভ্রমণ খাতসংশ্লিষ্ট কোম্পানিগুলো কর্মী ছাঁটাই করেছে। সেখানে খাদ্য ও অন্যান্য গৃহস্থালি পণ্য বিক্রির প্রতিষ্ঠানগুলো কর্মী নিয়োগের ঘোষণা দিচ্ছে। সেই ঘোষণায় এবার শামিল হলো ইউরোপের সুপারমার্কেট জায়ান্ট আলডি।

ইন্ডিপেন্ডেন্টের খবরে বলা হয়েছে, এই মুহূর্তে যুক্তরাজ্য ও আয়ারল্যান্ডে আলডির ৩৬ হাজার কর্মী কাজ করছেন। চলতি বছরেই তিন হাজার নতুন কর্মী নিয়োগ দিয়েছে তারা। নতুন ও নবায়নকৃত স্টোরে আগামী দুই বছরের মধ্যে ১৭০ কোটি ডলার বিনিয়োগের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে আলডি। এ পরিকল্পনার ফলে আগামী বছরে চার হাজার নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে।

বিজ্ঞাপন

২০১৯ সালে ব্রিটেনে আলডির বিক্রি ৮ শতাংশ বেড়ে ১ হাজার ২৩০ কোটি পাউন্ডে দাঁড়িয়েছে। ২০১৮ সালে এ বিক্রির পরিমাণ ছিল ১ হাজার ১৩০ কোটি পাউন্ড। গত বছর কোম্পানিটির কর-পূর্ব মুনাফা ৪৯ শতাংশ বেড়ে ২৭ কোটি ১৫০ লাখ পাউন্ডে দাঁড়িয়েছিল।

default-image

দেশটির দ্রুত বর্ধনশীল অনলাইন বাজারে প্রবেশের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে আলডি। কোম্পানিটির যুক্তরাজ্য ও আয়ারল্যান্ড শাখার শীর্ষ নির্বাহী জাইলস হার্লে বলেন, অনিশ্চিত অর্থনৈতিক পরিস্থিতি বিবেচনায় কম দামি জিনিসপত্রের চাহিদা বেড়েছে।

যুক্তরাজ্যের অর্থনৈতিক পরিস্থিতি ক্রমেই অনিশ্চিত হয়ে পড়ায় ব্রিটিশ পরিবারগুলো তাদের গ্রোসারি বিল নিয়েই ব্যতিব্যস্ত থাকছে। ব্রিটেনে ব্যবসা সম্প্রসারণে সাহসী ভূমিকা রাখায় আলডির কর্মী, সরবরাহকারী ও গ্রাহকদের প্রশংসা করেছেন হার্লে। তিনি বলেন, ‘কোভিড-১৯ মহামারি আমাদের সামনে যে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছিল, তার বিরুদ্ধে আমাদের কর্মীরা যে প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন, তা একই সঙ্গে নায়কোচিত ও ঐতিহাসিক।’

মন্তব্য করুন