• ৩. পদের নাম: ঊর্ধ্বতন সম্পাদক

    পদসংখ্যা:

    যোগ্যতা: সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর ডিগ্রি থাকতে হবে। সাংবাদিকতা/প্রকাশনা ও জনসংযোগ কাজে অন্তত পাঁচ বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। বাংলা ও ইংরেজি ভাষায় পারদর্শিতাসহ ফটোকম্পোজিং ও কম্পিউটার ব্যবহারে অভিজ্ঞ প্রার্থীদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।

    বয়স: অনূর্ধ্ব ৩২ বছর

    বেতন স্কেল: ২৯,০০০–৬৩,৪১০ টাকা (গ্রেড–৭)

    যেসব জেলার প্রার্থীদের আবেদনের প্রয়োজন নেই: প্রযোজ্য নয়

  • ৪. পদের নাম: প্রধান সহকারী

    পদসংখ্যা:

    যোগ্যতা: স্নাতক ডিগ্রি থাকতে হবে। সরকারি/আধা সরকারি প্রতিষ্ঠানে অন্তত পাঁচ বছর চাকরির অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

    বয়স: অনূর্ধ্ব ৩০ বছর

    বেতন স্কেল: ১২,৫০০–৩০,২৩০ টাকা (গ্রেড–১১)

    যেসব জেলার প্রার্থীদের আবেদনের প্রয়োজন নেই: গোপালগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, শরিয়তপুর, কিশোরগঞ্জ, ময়মনসিংহ, শেরপুর, কুমিল্লা, চাঁদপুর, কুড়িগ্রাম, খুলনা, কুষ্টিয়া, সাতক্ষীরা, বরিশাল, পটুয়াখালী, ভোলা, পিরোজপুর ও বরগুনা। তবে এতিম ও শারীরিক প্রতিবন্ধী কোটায় সব জেলার প্রার্থী আবেদন করতে পারবেন।

default-image
  • ৫. পদের নাম: কম্পিউটার অপারেটর

    পদসংখ্যা:

    যোগ্যতা: স্নাতক ডিগ্রি থাকতে হবে। কম্পিউটার প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত হতে হবে। বিজ্ঞানে স্নাতক ডিগ্রিধারীদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।

    বয়স: অনূর্ধ্ব ৩০ বছর

    বেতন স্কেল: ১২,৫০০–৩০,২৩০ টাকা (গ্রেড–১১)

    যেসব জেলার প্রার্থীদের আবেদনের প্রয়োজন নেই: গোপালগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, শরিয়তপুর, কিশোরগঞ্জ, ময়মনসিংহ, শেরপুর, কুমিল্লা, চাঁদপুর, কুড়িগ্রাম, খুলনা, কুষ্টিয়া, সাতক্ষীরা, বরিশাল, পটুয়াখালী, ভোলা, পিরোজপুর ও বরগুনা। তবে এতিম ও শারীরিক প্রতিবন্ধী কোটায় সব জেলার প্রার্থী আবেদন করতে পারবেন।

  • ৬. পদের নাম: সাঁটলিপিকার কাম কম্পিউটার অপারেটর

    পদসংখ্যা:

    যোগ্যতা: এইচএসসি বা সমমান পাস। ইংরেজি ও বাংলা সাঁটলিপিতে প্রতি মিনিটে যথাক্রমে ৮০ ও ৫০ এবং টাইপিংয়ে ইংরেজিতে ৩০ ও বাংলায় প্রতি মিনিটে ২৫ শব্দের গতি থাকতে হবে।

    বয়স: অনূর্ধ্ব ৩০ বছর

    বেতন স্কেল: ১১,০০০–২৬,৫৯০ টাকা (গ্রেড–১৩)

    যেসব জেলার প্রার্থীদের আবেদনের প্রয়োজন নেই: গোপালগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, শরিয়তপুর, কিশোরগঞ্জ, ময়মনসিংহ, শেরপুর, কুমিল্লা, চাঁদপুর, কুড়িগ্রাম, খুলনা, কুষ্টিয়া, সাতক্ষীরা, বরিশাল, পটুয়াখালী, ভোলা, পিরোজপুর ও বরগুনা। তবে এতিম ও শারীরিক প্রতিবন্ধী কোটায় সব জেলার প্রার্থী আবেদন করতে পারবেন।

  • ৭. পদের নাম: উচ্চমান সহকারী

    পদসংখ্যা:

    যোগ্যতা: এইচএসসি বা সমমান পাস। যেকোনো সরকারি/আধা সরকারি প্রতিষ্ঠানে তিন বছর চাকরির অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

    বয়স: অনূর্ধ্ব ৩০ বছর

    বেতন স্কেল: ১০,২০০–২৪,৬৮০ টাকা (গ্রেড–১৪)

    যেসব জেলার প্রার্থীদের আবেদনের প্রয়োজন নেই: গোপালগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, শরিয়তপুর, কিশোরগঞ্জ, ময়মনসিংহ, শেরপুর, কুমিল্লা, চাঁদপুর, কুড়িগ্রাম, খুলনা, কুষ্টিয়া, সাতক্ষীরা, বরিশাল, পটুয়াখালী, ভোলা, পিরোজপুর ও বরগুনা। তবে এতিম ও শারীরিক প্রতিবন্ধী কোটায় সব জেলার প্রার্থী আবেদন করতে পারবেন।

  • ৮. পদের নাম: প্রজেক্টর অপারেটর

    পদসংখ্যা:

    যোগ্যতা: এইচএসসি বা সমমান পাস। সংশ্লিষ্ট ক্ষেত্রে পাঁচ বছর চাকরির অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

    বয়স: অনূর্ধ্ব ৩০ বছর

    বেতন স্কেল: ১০,২০০–২৪,৬৮০ টাকা (গ্রেড–১৪)

    যেসব জেলার প্রার্থীদের আবেদনের প্রয়োজন নেই: গোপালগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, শরিয়তপুর, কিশোরগঞ্জ, ময়মনসিংহ, শেরপুর, কুমিল্লা, চাঁদপুর, কুড়িগ্রাম, খুলনা, কুষ্টিয়া, সাতক্ষীরা, বরিশাল, পটুয়াখালী, ভোলা, পিরোজপুর ও বরগুনা। তবে এতিম ও শারীরিক প্রতিবন্ধী কোটায় সব জেলার প্রার্থী আবেদন করতে পারবেন।

  • ৯. পদের নাম: ইলেকট্রিশিয়ান

    পদসংখ্যা:

    যোগ্যতা: অষ্টম শ্রেণি পাস। কারিগরি ইনস্টিটিউট থেকে ইলেকট্রিক যন্ত্র সংরক্ষণ ও গৃহে বৈদ্যুতিক তার সংযোগের কাজে এক বছরের ট্রেড সার্টিফিকেট কোর্সসহ তিন বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে অথবা অষ্টম শ্রেণি পাসসহ ইলেকট্রিশিয়ান ট্রেড কোর্স পাস এবং অন্তত দুই বছরের বাস্তব অভিজ্ঞতা। প্রজেক্টর এবং ডুপ্লিকেটিং মেশিন চালনায় দক্ষ হতে হবে।

    বয়স: অনূর্ধ্ব ৩০ বছর

    বেতন স্কেল: ৯,৭০০–২৩,৪৯০ টাকা (গ্রেড–১৫)

    যেসব জেলার প্রার্থীদের আবেদনের প্রয়োজন নেই: গোপালগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, শরিয়তপুর, কিশোরগঞ্জ, ময়মনসিংহ, শেরপুর, কুমিল্লা, চাঁদপুর, কুড়িগ্রাম, খুলনা, কুষ্টিয়া, সাতক্ষীরা, বরিশাল, পটুয়াখালী, ভোলা, পিরোজপুর ও বরগুনা। তবে এতিম ও শারীরিক প্রতিবন্ধী কোটায় সব জেলার প্রার্থী আবেদন করতে পারবেন।

default-image
  • ১০. পদের নাম: এলডিএ কাম কম্পিউটার অপারেটর

    পদসংখ্যা:

    যোগ্যতা: এইচএসসি বা সমমান পাস। মুদ্রাক্ষর লিখনে বাংলায় ২০ ও ইংরেজিতে ৩০ শব্দের গতি থাকতে হবে।

    বয়স: অনূর্ধ্ব ৩০ বছর

    বেতন স্কেল: ৯,৩০০–২২,৪৯০ টাকা (গ্রেড–১৬)

    যেসব জেলার প্রার্থীদের আবেদনের প্রয়োজন নেই: গোপালগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, শরিয়তপুর, কিশোরগঞ্জ, ময়মনসিংহ, শেরপুর, কুমিল্লা, চাঁদপুর, কুড়িগ্রাম, খুলনা, কুষ্টিয়া, সাতক্ষীরা, বরিশাল, পটুয়াখালী, ভোলা, পিরোজপুর ও বরগুনা। তবে এতিম ও শারীরিক প্রতিবন্ধী কোটায় সব জেলার প্রার্থী আবেদন করতে পারবেন।

  • ১১. পদের নাম: ফটোগ্রাফার

    পদসংখ্যা:

    যোগ্যতা: এসএসসি বা সমমান পাস। ছবি তোলার যন্ত্রপাতি পরিচালনা ও রক্ষণাবেক্ষণ এবং স্থির ছবি ছাপানো, ভিডিও/স্লাইড তৈরি করা এবং ইনডোর ও আউটডোর ছবি তোলার অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

    বয়স: অনূর্ধ্ব ৩০ বছর

    বেতন স্কেল: ৯,৩০০–২২,৪৯০ টাকা (গ্রেড–১৬)

    যেসব জেলার প্রার্থীদের আবেদনের প্রয়োজন নেই: গোপালগঞ্জ, নরসিংদী, মাদারীপুর, শেরপুর, কুমিল্লা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, সিরাজগঞ্জ, কুড়িগ্রাম, নীলফামারী, খুলনা, নড়াইল, বাগেরহাট, কুষ্টিয়া, সাতক্ষীরা, পটুয়াখালী, ভোলা ও পিরোজপুর। তবে এতিম ও শারীরিক প্রতিবন্ধী কোটায় সব জেলার প্রার্থী আবেদন করতে পারবেন।

  • ১২. পদের নাম: প্লাম্বার

    পদসংখ্যা:

    যোগ্যতা: এসএসসি বা সমমান পাস। প্লাম্বিংয়ের কাজে দক্ষতা এবং পাম্পমেশিন অপারেটিংয়ে অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

    বয়স: অনূর্ধ্ব ৩০ বছর

    বেতন স্কেল: ৮,৮০০–২১,৩১০ টাকা (গ্রেড–১৮)

    যেসব জেলার প্রার্থীদের আবেদনের প্রয়োজন নেই: গোপালগঞ্জ, নরসিংদী, মাদারীপুর, শেরপুর, কুমিল্লা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, সিরাজগঞ্জ, কুড়িগ্রাম, নীলফামারী, খুলনা, নড়াইল, বাগেরহাট, কুষ্টিয়া, সাতক্ষীরা, পটুয়াখালী, ভোলা ও পিরোজপুর। তবে এতিম ও শারীরিক প্রতিবন্ধী কোটায় সব জেলার প্রার্থী আবেদন করতে পারবেন।

  • ১৩. পদের নাম: বাবুর্চি (পাচক)

    পদসংখ্যা:

    যোগ্যতা: অষ্টম শ্রেণি পাস। রান্নার কাজে পাঁচ বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

    বয়স: অনূর্ধ্ব ৩০ বছর

    বেতন স্কেল: ৮,৮০০–২১,৩১০ টাকা (গ্রেড–১৮)

    যেসব জেলার প্রার্থীদের আবেদনের প্রয়োজন নেই: গোপালগঞ্জ, নরসিংদী, মাদারীপুর, শেরপুর, কুমিল্লা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, সিরাজগঞ্জ, কুড়িগ্রাম, নীলফামারী, খুলনা, নড়াইল, বাগেরহাট, কুষ্টিয়া, সাতক্ষীরা, পটুয়াখালী, ভোলা ও পিরোজপুর। তবে এতিম ও শারীরিক প্রতিবন্ধী কোটায় সব জেলার প্রার্থী আবেদন করতে পারবেন।

  • ১৪. পদের নাম: মশালচি

    পদসংখ্যা:

    যোগ্যতা: অষ্টম শ্রেণি পাস। রান্নার জন্য মসলা পেষা ও কিচেনের অন্যান্য কাজে সহযোগিতা করার অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

    বয়স: অনূর্ধ্ব ৩০ বছর

    বেতন স্কেল: ৮,২৫০–২০,০১০ টাকা (গ্রেড–২০)

    যেসব জেলার প্রার্থীদের আবেদনের প্রয়োজন নেই: গোপালগঞ্জ, নরসিংদী, মাদারীপুর, শেরপুর, কুমিল্লা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, সিরাজগঞ্জ, কুড়িগ্রাম, নীলফামারী, খুলনা, নড়াইল, বাগেরহাট, কুষ্টিয়া, সাতক্ষীরা, পটুয়াখালী, ভোলা ও পিরোজপুর। তবে এতিম ও শারীরিক প্রতিবন্ধী কোটায় সব জেলার প্রার্থী আবেদন করতে পারবেন।

default-image
  • ১৫. পদের নাম: হেলপার

    পদসংখ্যা:

    যোগ্যতা: অষ্টম শ্রেণি পাস। শ্রেণিকক্ষ, টেবিল, চেয়ার ইত্যাদি সাজানো–গোছানো কাজের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

    বয়স: অনূর্ধ্ব ৩০ বছর

    বেতন স্কেল: ৮,২৫০–২০,০১০ টাকা (গ্রেড–২০)

    যেসব জেলার প্রার্থীদের আবেদনের প্রয়োজন নেই: গোপালগঞ্জ, নরসিংদী, মাদারীপুর, শেরপুর, কুমিল্লা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, সিরাজগঞ্জ, কুড়িগ্রাম, নীলফামারী, খুলনা, নড়াইল, বাগেরহাট, কুষ্টিয়া, সাতক্ষীরা, পটুয়াখালী, ভোলা ও পিরোজপুর। তবে এতিম ও শারীরিক প্রতিবন্ধী কোটায় সব জেলার প্রার্থী আবেদন করতে পারবেন।

  • ১৬. পদের নাম: মালি

    পদসংখ্যা:

    যোগ্যতা: অষ্টম শ্রেণি পাস। বাগান পরিচর্যা কাজের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

    বয়স: অনূর্ধ্ব ৩০ বছর

    বেতন স্কেল: ৮,২৫০–২০,০১০ টাকা (গ্রেড–২০)

    যেসব জেলার প্রার্থীদের আবেদনের প্রয়োজন নেই: গোপালগঞ্জ, নরসিংদী, মাদারীপুর, শেরপুর, কুমিল্লা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, সিরাজগঞ্জ, কুড়িগ্রাম, নীলফামারী, খুলনা, নড়াইল, বাগেরহাট, কুষ্টিয়া, সাতক্ষীরা, পটুয়াখালী, ভোলা ও পিরোজপুর। তবে এতিম ও শারীরিক প্রতিবন্ধী কোটায় সব জেলার প্রার্থী আবেদন করতে পারবেন।

  • ১৭. পদের নাম: পরিচ্ছন্নতাকর্মীরা (ঝাড়ুদার)

    পদসংখ্যা:

    যোগ্যতা: অষ্টম শ্রেণি পাস। পরিচ্ছন্নতা কাজে অভিজ্ঞদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।

    বয়স: অনূর্ধ্ব ৩০ বছর

    বেতন স্কেল: ৮,২৫০–২০,০১০ টাকা (গ্রেড–২০)

    যেসব জেলার প্রার্থীদের আবেদনের প্রয়োজন নেই: গোপালগঞ্জ, নরসিংদী, মাদারীপুর, শেরপুর, কুমিল্লা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, সিরাজগঞ্জ, কুড়িগ্রাম, নীলফামারী, খুলনা, নড়াইল, বাগেরহাট, কুষ্টিয়া, সাতক্ষীরা, পটুয়াখালী, ভোলা ও পিরোজপুর। তবে এতিম ও শারীরিক প্রতিবন্ধী কোটায় সব জেলার প্রার্থী আবেদন করতে পারবেন।

বয়সসীমা

২০২২ সালের ১ জুলাই প্রার্থীর বয়স অবশ্যই উল্লেখিত সীমার মধ্যে থাকতে হবে।

আবেদন যেভাবে

আগ্রহী প্রার্থীদের অবশ্যই সাদা কাগজে লিখিত/টাইপ করে আবেদনপত্র সরাসরি বা রেজিস্টার্ড ডাকযোগে দাখিল করতে হবে। খামের ওপর পদের নাম স্পষ্ট করে উল্লেখ করতে হবে। আবেদনের শর্তাবলি, পদ্ধতি, প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের তালিকা, ফি জমাদান ও নিয়োগসংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য এই লিংক থেকে জেনে নিতে হবে।

default-image

আবেদন ফি

পরীক্ষার ফি বাবদ ১ থেকে ৩ নম্বর পদের জন্য ৫০০ টাকা ও ৪ থেকে ১৭ নম্বর পদের জন্য ৩০০ টাকার পে–অর্ডার/ব্যাংক মহাপরিচালক, বিআইএম, ঢাকার অনুকূলে জমা দিয়ে রসিদ আবেদনপত্রের সঙ্গে সংযুক্ত করতে হবে।

আবেদনপত্র পাঠানোর ঠিকানা: মহাপরিচালক, বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ম্যানেজমেন্ট, ৪ সোবহানবাগ, মিরপুর রোড, ঢাকা–১২০৭।

আবেদনপত্র পাঠানোর শেষ তারিখ: ৩১ জুলাই, ২০২২।

নিয়োগ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন