বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

উত্তর

. ‘দ্য ব্রিটিশ ইস্ট ইন্ডিয়া’ কোম্পানি স্থাপিত হয় ১৬০০ সালে।

. মুসলমানরা শিক্ষা, চাকরিসহ বিভিন্ন মৌলিক দাবিদাওয়া আদায়ে দীর্ঘদিন পিছিয়ে ছিল। ফলে তারা বিভিন্ন ক্ষেত্রে বঞ্চনার শিকার হয়। এরই ধারাবাহিকতায় মুসলমানদের রাজনৈতিক দাবিদাওয়া ও অধিকার ইংরেজ শাসকদের কাছে তুলে ধরার জন্য ১৯০৬ সালে মুসলিম লীগ প্রতিষ্ঠিত হয়।

. উদ্দীপকে জেরিন ব্রিটিশ বেনিয়াদের শাসনের কথা বলতে চেয়েছে। তার বক্তব্যে ভারত উপমহাদেশে ব্রিটিশদের শাসন-শোষণ, জুলুম-নির্যাতন আর সম্পদ লুণ্ঠনের ইতিহাস ব্যক্ত হয়েছে। ১৭৫৭ সালের ২৩ জুন পলাশীর যুদ্ধে নবাব সিরাজউদ্দৌলার পরাজয় ও মর্মান্তিক মৃত্যু এবং ইংরেজদের বিজয়ের মধ্য দিয়ে এ দেশে ইংরেজ শাসন প্রতিষ্ঠিত হয়। তারা ২০০ বছর ধরে এ দেশের মানুষকে অধীন করে রেখেছিল। তারা নিজেদের সভ্য জাতি হিসেবে ভাবত।

তাই তারা আমাদের সভ্যতা শিখিয়েছে। অথচ সভ্যতার আড়ালে এ দেশবাসীর ওপর তারা চরম অসভ্য আচরণ করেছে। এ দেশের কামার-কুমার, কৃষক, জেলে, তাঁতি আর খেটে খাওয়া মানুষের রক্ত পানি করা সম্পদ তারা মুনাফার নামে লুটে নিয়েছে। ইংরেজরা এ দেশে প্রজাদের ওপর অতিরিক্ত কর আদায়ের জন্য প্রচণ্ড চাপ সৃষ্টি করে। অথচ এ দেশ থেকে সম্পদ পাচার করে নিজ দেশে সম্পদের প্রাচুর্য তৈরি করেছিল। ইংরেজ শাসনের মূল উদ্দেশ্য ছিল এ দেশের সম্পদ পাচার।

. উদ্দীপকে জেরিনের দৃষ্টিতে ভারত উপমহাদেশে ব্রিটিশ শাসনব্যবস্থার কথা ফুটে উঠেছে। শেষ পর্যন্ত এ দেশে ব্রিটিশদের পরিণতি ভালো হয়নি। এ দেশের স্বাধীনচেতা মানুষ তাদের অত্যাচারের জবাব দিয়েছে। ফলে তারা এ দেশ থেকে পরাজিত হয়ে বিতাড়িত হয়েছিল।

২০০ বছরের ব্রিটিশ শাসন-শোষণ আর নির্যাতনের শিকার হয়ে এ দেশের মানুষ সচেতন হয়ে উঠেছিল। এ দেশের মানুষ দল-মতনির্বিশেষে বুঝতে পেরেছিল, ব্রিটিশরা আমাদের বন্ধু নয়। তাদের হাতে আমাদের জীবন ও দেশের সম্পদ নিরাপদ নয়। ফলে সিপাহি বিদ্রোহ, অসহযোগ আন্দোলন, নীল বিদ্রোহসহ তাদের বিরুদ্ধে অসংখ্য বিদ্রোহ সংঘটিত হয়। চালানো হয় তাদের বিরুদ্ধে গুপ্তহত্যা ও সশস্ত্র যুদ্ধ। রাজনৈতিক দল গঠন ও আন্দোলনের মাধ্যমে এ দেশের মানুষ রাজনীতিসচেতন হয়ে ওঠে।

আন্দোলনের মাধ্যমে এ দেশের মানুষ বুঝিয়ে দেয়, তারা স্বাধীনতা চায়। ফলে বাধ্য হয়ে ১৯৪৭ সালে ব্রিটিশ সরকার এ দেশ ছাড়ে।

২০০ বছরের ইংরেজ শাসনের শৃঙ্খল থেকে এ দেশের মানুষ স্বাধীনতা লাভ করে।

মো. আবুল হাছান, সিনিয়র শিক্ষক, আদমজী ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল, ঢাকা

শিক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন