বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আজ সোমবার ঢাকা কলেজ মিলনায়তনে বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সমিতি আয়োজিত ইফতার অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে নেহাল আহমেদ এসব কথা বলেন। এ সময় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি।

শিক্ষা ক্যাডারের পদের উন্নতির ক্ষেত্রেও বিভিন্ন রকমের প্রতিবন্ধকতার চিত্র বোঝাতে গিয়ে নেহাল আহমেদ আরও বলেন, ‘মাউশির মহাপরিচালকের পদটি গ্রেড–১–এর পদ। কিন্তু এটা এমন একটি জায়গায় ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে, আকাশের দিকে তাকালে... কিন্তু সিঁড়ি নেই। সেই সিঁড়ি সৃষ্টির পেছনেও বিভিন্ন রকমের দাঁড়ি, কমা, সেমিকোলন—এসবের কোয়ারি।’ এ সময় তিনি শিক্ষামন্ত্রীর মাধ্যমে এসব সমস্যার সমাধান হবে বলে আশা প্রকাশ করেন।

এই বক্তব্যের প্রেক্ষাপটে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেন, ‘আমরা অনেক দিন থেকে অনেক চেষ্টা করছি। প্রথম গ্রেডে যাওয়ার সিঁড়ির কথা বলেছেন।

সেই সিঁড়ি নেই। দ্বিতীয় গ্রেড নেই। তৃতীয় গ্রেডে অল্প কয়েকটি পদ দেওয়া হয়েছে। সেগুলোও কার্যকর করায় বিলম্ব হচ্ছে। এ রকম নানাবিধ সমস্যা আছে। এসব সমস্য দূর করার জন্য আমাদের সবাইকে একযোগে কাজ করতে হবে।’

বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সমিতির সভাপতি অধ্যাপক শাহেদুল খবির চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদ্রাসা বিভাগের সচিব কামাল হোসেন, বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সমিতির সহসভাপতি (ঢাকা মহানগর) মামুন উল হক প্রমুখ।

শিক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন