বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
আগামী ১ থেকে ৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত বিভিন্ন কোটায় ভর্তির জন্য অনলাইনে প্রাথমিক আবেদন ফরম পূরণ করতে হবে। ২ থেকে ১২ ডিসেম্বরের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অফিসের শিক্ষা শাখায় কোটার আবেদনপত্রের সঙ্গে কোটার স্বপক্ষে প্রমাণ হিসেবে জমা দিতে হবে।

এর আগে ২৬ থেকে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত এ, বি, সি, ডি, ই, এফ, জি, এইচ ও আই ইউনিটের ভর্তি–ইচ্ছুক শিক্ষার্থীদের সাক্ষাৎকার নেওয়া হবে। এ সময় ভর্তি–ইচ্ছুক শিক্ষার্থীদের বিভাগ পছন্দক্রমের ফরম পূরণ করে অবশ্যই প্রিন্ট করে নিয়ে আসতে হবে।

২৮ থেকে ৩০ নভেম্বর সি১ ইউনিটের (নাটক ও নাট্যতত্ত্ব এবং চারুকলা) ব্যবহারিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। সাক্ষাৎকারের সময় এসএসসি বা সমমানের মূল সনদ ও নম্বরপত্র অবশ্যই সঙ্গে আনতে হবে।

৬ ডিসেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের সব ইউনিটে ভর্তির জন্য নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হবে। পরে ৭ থেকে ১২ ডিসেম্বরের মধ্যে শিক্ষার্থীদের অনলাইনে ভর্তি হতে হবে।

২০ ডিসেম্বর ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীদের মাইগ্রেশন ও ২১ ডিসেম্বর শূন্য আসনের বিপরীতে দ্বিতীয় মেধাতালিকা প্রকাশ করা হবে। ২৬ থেকে ২৯ ডিসেম্বরের মধ্যে দ্বিতীয় ধাপে প্রকাশিত মেধাতালিকায় স্থান পাওয়া শিক্ষার্থীদের অনলাইনে ভর্তি হতে হবে।

আগামী ১ থেকে ৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত বিভিন্ন কোটায় ভর্তির জন্য অনলাইনে প্রাথমিক আবেদন ফরম পূরণ করতে হবে। ২ থেকে ১২ ডিসেম্বরের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অফিসের শিক্ষা শাখায় কোটার আবেদনপত্রের সঙ্গে কোটার স্বপক্ষে প্রমাণ হিসেবে জমা দিতে হবে।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন থেকে জানানো ভর্তির বিস্তারিত সময়সূচি ও নির্দেশিকা এই লিংকে জানা যাবে।

শিক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন