জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র ঐক্য পরিষদের ব্যানারে বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা এ মানববন্ধন করেন। জাতিয় প্রেসক্লাব, ১০ নভেম্বর
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র ঐক্য পরিষদের ব্যানারে বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা এ মানববন্ধন করেন। জাতিয় প্রেসক্লাব, ১০ নভেম্বরছবি: প্রথম আলো

টিউশন ফি কমানোর দাবি জানিয়েছেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। তাঁরা বলছেন, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিপুলসংখ্যক শিক্ষার্থী এখন অভিভাবকহীন। করোনার কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ। অনলাইনে তাঁদের কোনো ক্লাস, পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে না।

আজ মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক মানববন্ধনে এসব কথা বলেন শিক্ষার্থীরা। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র ঐক্য পরিষদের ব্যানারে বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা এ মানববন্ধন করেন। সেখান থেকে চার দফা দাবি জানানো হয়।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র ঐক্য পরিষদের আহ্বায়ক মৃণাল আমিন বলেন, ২০১৫-১৬ ও ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীদের ব্যবহারিক পরীক্ষা না হওয়ায় তাঁরা আটকে আছেন। তাঁদের শিক্ষাবর্ষের ফলাফল ঝুলে আছে। চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থীরা ইতিমধ্যেই ছয় মাসের সেশনজটে পড়েছেন। অথচ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় সেশনজট কমানোর কোনো উদ্যোগ নিচ্ছে না।

বিজ্ঞাপন

মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা বলেন, করোনার কারণে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা পিছিয়ে যাচ্ছেন। অনেকেই এ বছর শিক্ষাজীবন শেষ করে চাকরির আবেদন করতে পারতেন, সেটিও হচ্ছে না। পারিবারিক চাপে পড়ে অনেক শিক্ষার্থীই হতাশ। অথচ করোনার দোহাই দিয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের শিক্ষাজীবন দমিয়ে রাখা হচ্ছে।

মানববন্ধন থেকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা চার দফা দাবি তুলে ধরেন। দাবিগুলো হলো করোনাকালে টিউশন ফি কমানো, তৃতীয় ও চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থীদের পরীক্ষার ফল অনতিবিলম্বে ঘোষণা করা, স্নাতকোত্তর শেষ বর্ষের পরীক্ষা নেওয়ার ব্যবস্থা করা এবং বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মমুখী শিক্ষাপদ্ধতি অন্তর্ভুক্ত করা।

মন্তব্য পড়ুন 0