এর প্রতিক্রিয়া জানাতে আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির কার্যালয়ে জরুরি সংবাদ সম্মেলন করেন ছাত্রীরা। ১৩ ডিসেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মো. আখতারুজ্জামান বরাবর তাঁরা যে স্মারকলিপি দিয়েছিলেন, সেখানে থাকা আরও তিনটি দাবি এখনো মেনে নেওয়া হয়নি বলে জানান তাঁরা। ওই দাবিগুলো হলো ‘স্থানীয় অভিভাবকের’ পরিবর্তে ‘জরুরি যোগাযোগ’ শব্দটি প্রবর্তন; আবাসিক শিক্ষক–কর্মকর্তা-কর্মচারীদের দ্বারা যেকোনো ধরনের হয়রানি ও অসহযোগিতামূলক আচরণ বন্ধে দৃষ্টান্তমূলক ব্যবস্থা নেওয়া এবং শিক্ষা কার্যক্রম চলমান থাকা সাপেক্ষে অনাবাসিক ছাত্রীদের হলে প্রবেশের অধিকার পুনর্বহাল ও জরুরি প্রয়োজনে তাঁদের হলে অবস্থান করতে দেওয়া।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান শামসুন নাহার হল সংসদের সাবেক ভিপি শেখ তাসনিম আফরোজ। তিনি বলেন, ‘আমরা বরাবরই চেয়েছি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী হলগুলোতে যে বৈষম্যমূলক আচরণ প্রশাসন করছে, তার অবসান। এরই পরিপ্রেক্ষিতেই উপাচার্যের কাছে আমরা চার দফা দাবি পেশ করেছিলাম, যার প্রতিটিই আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। প্রথম দাবিটি প্রভোস্ট স্ট্যান্ডিং কমিটির সভায় মেনে নেওয়া হয়েছে, কিন্তু বাকি তিনটি মানা হয়নি। আমরা প্রতিটি দাবির বাস্তবায়ন চাই।’

বিশ্ববিদ্যালয় একটি হলেও প্রতিটি হলে কেন আলাদা নিয়ম থাকবে, এমন প্রশ্ন তুলে শেখ তাসনিম আফরোজ আরও বলেন, ‘আমরা প্রতিটি আবাসিক হলে একই নিয়ম চাই। এর জন্য ছাত্র ও ছাত্রীদের মোট ১৮টি হলের নিয়মাবলি জরুরি ভিত্তিতে নতুন করে সংশোধন করে সব হলের জন্য শিক্ষার্থীবান্ধব ও যুগোপযোগী অভিন্ন নিয়ম প্রণয়নের জোর দাবি জানাচ্ছি। লিঙ্গভেদে কোনো ধরনের বৈষম্যমূলক নিয়ম করা যাবে না। আশা করছি, আমাদের দাবিগুলো মেনে নেওয়া হবে।’

সংবাদ সম্মেলন থেকে কবি সুফিয়া কামাল হলের আবাসিক ছাত্রী এলমা চৌধুরী ‘হত্যার’ সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে এর সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের অবিলম্বে শাস্তি নিশ্চিত করার দাবি জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন শামসুন নাহার হল সংসদের সাবেক জিএস আফসানা, সাবেক এজিএস ফাতিমা তাহসিন, সাবেক সাহিত্য সম্পাদক অরুণিমা তাহসিন, আবাসিক ছাত্রী অর্ণি আনজুম, কবি সুফিয়া কামাল হল সংসদের সাবেক জিএস মনিরা শারমিন, সাবেক সমাজসেবা সম্পাদক রিপা কুণ্ডু, সাবেক সংস্কৃতি সম্পাদক দ্যুতি অরণ্য চৌধুরী ও আবাসিক ছাত্রী উমামা ফাতেমা।আনজুম এবং কবি সুফিয়া কামাল হল সংসদের সাবেক জিএস মনিরা শারমিন, সাবেক সমাজসেবা সম্পাদক রিপা কুণ্ডু, সাবেক সংস্কৃতি সম্পাদক দ্যুতি অরণ্য চৌধুরী ও আবাসিক ছাত্রী উমামা ফাতেমা৷

শিক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন