default-image

বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণের দাবিতে মানববন্ধন ও অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে বাংলাদেশ বেসরকারি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি। আজ সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সংগঠনটির সদস্যরা মানববন্ধনে অংশ নেন।

মানববন্ধনে অংশ নিয়ে রাবেয়া নামের এক শিক্ষক বলেন, চরম আর্থিক সংকটে ভুগছেন তিনি। ছেলেমেয়ে নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন। অবিলম্বে সব বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ করা হোক।

মানববন্ধনে শিক্ষক নেতারা বলেন, বেসরকারি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির ব্যানারে ২০১৮ সালে ১৮ দিন, ২০১৯ সালে ৫৬ দিন জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে শান্তিপূর্ণ অনশন কর্মসূচি পালন করেন তাঁরা। অনশন চলার সময় ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে একজন শিক্ষক মারাও যান।

সংগঠনের যুগ্ম আহ্বায়ক সাইদুর রহমান বলেন, দীর্ঘ সাত বছর পার হলেও বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোকে জাতীয়করণের আওতায় আনা হয়নি। জাতীয়করণ আমাদের ন্যায্য অধিকার।

বিজ্ঞাপন

বেসরকারি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির আহ্বায়ক বদরুল আমিন সরকার বলেন, বেসরকারি প্রাথমিক শিক্ষকদের দেখার কেউ নেই। শিক্ষকেরা তাঁদের ছেলেমেয়েদের পড়ালেখার খরচ জোগাতে পারছেন না। শিক্ষকেরা মানবেতর জীবন যাপন করছেন।

বেসরকারি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির নেতারা বলছেন, আট বছর আগে সরকার ২৬ হাজার ১৯৩টি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও কর্মরত শিক্ষকদের জাতীয়করণের ঘোষণা দেয়। এরপর থেকে আর কোনো প্রাথমিক বিদ্যালয়কে জাতীয়করণ করা হয়নি।

প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির আহ্বায়ক বদরুল আমিন সরকার বলেন, বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণের দাবিতে শিক্ষকদের অনশন কর্মসূচি চলবে ১৭ মার্চ পর্যন্ত।

শিক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন