default-image

অধ্যায় ৪

প্রশ্ন: বাংলাদেশের কয়েকটি বৃহৎ শিল্পের নাম লেখো।

উত্তর: বাংলাদেশের কয়েকটি বৃহৎ শিল্প হলো—সার, সিমেন্ট, ওষুধ, কাগজ, চিনি ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য।

প্রশ্ন: বাংলাদেশের কোন কোন স্থানে সার কারখানা রয়েছে লেখো।

উত্তর: বাংলাদেশের ফেঞ্চুগঞ্জ, ঘোড়াশাল, আশুগঞ্জ, চট্টগ্রাম, তারাকান্দি প্রভৃতি স্থানে সার কারখানা রয়েছে।

প্রশ্ন: কাগজ তৈরি হয় কী দিয়ে? কোথায় কোথায় সরকারি কাগজ কল রয়েছে লেখো।

উত্তর: কাগজ কলগুলোতে গাছের গুঁড়ি থেকে কাগজ তৈরি করা হয়। চন্দ্রঘোনা, খুলনা ও পাকশিতে সরকারি কাগজ কল রয়েছে।

প্রশ্ন: কুটিরশিল্প কাকে বলে? কয়েকটি কুটিরশিল্পের নাম লেখো।

উত্তর: যখন কোনো পণ্য ক্ষুদ্র পরিসরে বাড়িঘরে অল্প পরিমাণে তৈরি করা হয়, তখন তাকে কুটিরশিল্প বলে। উল্লেখযোগ্য কুটিরশিল্প হলো—কাঠশিল্প, কাঁসাশিল্প, মৃৎশিল্প ইত্যাদি।

বিজ্ঞাপন

অধ্যায় ৫

প্রশ্ন: প্রতিবছর বহু মানুষ শহরে চলে আসছে কেন?

উত্তর: প্রতিবছর প্রায় ৩০ লাখ মানুষ মোট জনসংখ্যার সঙ্গে যুক্ত হচ্ছে। নিরাপত্তা আর কাজের খোঁজে এসব মানুষ শহরে চলে আসছে। শহরে আসা ছিন্নমূল মানুষেরা মানবেতর অবস্থায় বসবাস করছে।

প্রশ্ন: পরিবেশের ওপর অতিরিক্ত জনসংখ্যার প্রভাব লেখো।

উত্তর: পরিবেশের ওপর অতিরিক্ত জনসংখ্যার প্রভাব হলো:

১. মানুষ গাছপালা কেটে বাড়িঘর তৈরি করছে।

২. অধিক ফসল ফলাতে গিয়ে জমিতে প্রচুর রাসায়নিক সার ও কীটনাশক ব্যবহার করতে হচ্ছে।

প্রশ্ন: পানিদূষণের দুটি কারণ লেখো।

উত্তর: পানিদূষণের দুটি কারণ হলো:

১. রাসায়নিক সার ও কীটনাশক ব্যবহারের ফলে পুকুর ও নদীর পানি দূষিত হচ্ছে।

২. কলকারখানার বর্জ্য নদীতে মিশে পানি দূষিত করছে।

প্রশ্ন: স্বাস্থ্যসেবা উন্নয়নের প্রয়োজন কেন?

উত্তর: জনসংখ্যার তুলনায় চিকিৎসকের সংখ্যা কম হওয়ায় মানুষ পর্যাপ্ত চিকিৎসাসেবা পাচ্ছে না। স্বাস্থ্যহীনতার কারণে অনেকে উপার্জন করতে পারছে না। ফলে অর্থনীতিতে তারা অবদান রাখতে পারছে না।

প্রশ্ন: অধিক জনসংখ্যা শিক্ষার ওপর কী প্রভাব ফেলছে?

উত্তর: শিক্ষার ওপর অধিক জনসংখ্যার ২টি প্রভাব হলো—

১. দরিদ্রতার কারণে অনেক পিতা-মাতা তাদের সন্তানদের বিদ্যালয়ে পাঠাতে পারে না।

২. বিদ্যালয়ে ভর্তি হলেও অনেক শিশু পরিবারকে কাজে সাহায্য করতে গিয়ে লেখাপড়া শেষ না করে ঝরে পড়ে।

প্রশ্ন: মানবসম্পদ উন্নয়নের তিনটি উপায় লেখো।

উত্তর: মানবসম্পদ উন্নয়নের তিনটি উপায় হলো:

১. শ্রমশক্তি রপ্তানি

২. মৌলিক শিকার উন্নয়ন

৩. বিশেষায়িত প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষতা বৃদ্ধি।

প্রশ্ন: দেশে শিক্ষার হার বাড়ানোর জন্য দুটি করণীয় লেখো।

উত্তর: দেশের শিক্ষার হার বাড়ানোর ক্ষেত্রে করণীয়:

১. শতভাগ সাক্ষরতার হার নিশ্চিত করতে হবে। অর্থাৎ সব শিশুকেই স্কুলে পাঠাতে হবে।

২. শিক্ষার মান বৃদ্ধির জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।

বিজ্ঞাপন
শিক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন