বিশ্ববিদ্যালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত কর্মশালায় উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফৈয়াজ খান, উপদেষ্টা অধ্যাপক আবু সালেহ, সহ-উপাচার্য অধ্যাপক আলী নূর, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক আলী আহমেদসহ বিভিন্ন অনুষদের ডিনেরা। সভাপতিত্ব করেন বিইউবিটি রিসার্চ অ্যান্ড ইনোভেশন সেন্টারের পরিচালক অধ্যাপক শান্তি নারায়ণ ঘোষ।

কর্মশালায় ইনোভেশন সেন্টারের পরিচালক নারায়ণ ঘোষ উল্লেখ করেন, ২০১৫-২০১৮ মেয়াদে বিইউবিটি রিসার্চ অ্যান্ড ইনোভেশন সেন্টার চারটি আইটিপিএআরএম সম্পন্ন করে। প্রতিটি আইটিপিএআরএম ছিল দুই মাসব্যাপী। চারটি ট্রেনিং প্রোগ্রামে ৩৩ লাখের বেশি টাকা বিনিয়োগ করা হয়।

অধ্যাপক ঘোষ আসন্ন পঞ্চম আইটিপিএআরএম-এ বিজ্ঞান, ব্যবসায়, কলা এবং আইন এর উপযোগী গবেষণা পদ্ধতি পরিচালনার ওপর অভিমত ব্যক্ত করেন। কর্মশালায় অংশগ্রহণকারীরা এসব বিষয়ের ওপর তাদের মতামত দেন।

উপাচার্য অধ্যাপক ফৈয়াজ খান ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড অ্যাপ্লাইড সায়েন্সেস, ব্যবসায় ও সামাজিক বিজ্ঞান, আর্টস অ্যান্ড হিউম্যানিটিজ, আইন অনুষদ এর শিক্ষকদের নিয়ে গঠিত একটি নতুন পরিচালনা কমিটি ও দুটি উপকমিটির প্রস্তাব দেন।

উপাচার্য বলেন, ভবিষ্যতে আইটিপিএআরএম বিশ্ববিদ্যালয়ের সব শিক্ষকদের বাধ্যতামূলকভাবে সম্পন্ন করতে হবে। প্রত্যেক অংশগ্রহণকারীকে ট্রেনিং প্রোগ্রাম শেষ বাছাইকৃত একটি সমস্যার ওপর গবেষণা প্রস্তাব জমা দিতে হবে।

শিক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন