default-image

অধ্যায় ৪

শহীদ আলম একটি প্রতিষ্ঠানের পরিচালক। তাঁর অধীন ৪ জন ব্যবস্থাপক ও ১৩ জন শাখা ব্যবস্থাপক আছেন। সম্প্রতি কাজের চাপ বেশি হওয়ায় শহীদ আলমের সিদ্ধান্ত নিতে সমস্যা হচ্ছে। প্রতিষ্ঠান তাঁর কথা চিন্তা করে একজন পরামর্শক নিয়োগ দেয়। যিনি শহীদ আলমকে বিভিন্ন বিষয়ে পরামর্শ ও সহায়তা প্রদান করেন। বর্তমানে প্রতিষ্ঠানটির অবস্থা আরও উন্নতি হচ্ছে।

প্রশ্ন

ক. ব্যবস্থাপনার কাম্য পরিসর কী?

খ. সংগঠনে দ্বৈত অধীনতা পরিহার করতে হয় কেন?

গ. পরামর্শক নিয়োগের আগে প্রতিষ্ঠানের সংগঠন কাঠামো কী রূপ ছিল? ব্যাখ্যা করো।

ঘ. উদ্দীপকের আলোকে ‘সাংগঠনিক পরিবর্তনের ফলেই প্রতিষ্ঠানের উন্নতি হয়েছে’—মূল্যায়ন করো।

উত্তর

ক. ব্যবস্থাপনার কাম্য পরিসর বলতে একজন ব্যবস্থাপকের সরাসরি তত্ত্বাবধানে এমন সংখ্যক অধস্তন ন্যস্ত করাকে বোঝায়, যাঁদের কাজ তিনি সফলভাবে তত্ত্বাবধান করতে সমর্থ হন এবং ব্যয়ের পরিমাণও সর্বনিম্ন হয়।

খ. একজন কর্মী বা বিভাগ প্রত্যক্ষভাবে একাধিক ঊর্ধ্বতনের অধীনে থাকলে তাকে দ্বৈত অধীনতা বলে।

সংগঠন-প্রক্রিয়ায় কার্যবিভাজনের সঙ্গে কে কার অধীন তা নির্নীত হয়। এ ক্ষেত্রে যদি কোনো ব্যক্তি বা বিভাগকে একাধিক ঊর্ধ্বতনের কর্তৃত্বাধীন করা হয়, তবেই ওই অধস্তনের পক্ষে একাধিক ঊর্ধ্বতনের নির্দেশ যথাযথভাবে পালন সম্ভব হয় না। এতে কার্যক্ষেত্রে বিশৃঙ্খলা দেখা দেয়। তাই সংগঠনের দ্বৈত অধীনতা পরিহার করা উচিত।

গ. পরামর্শক নিয়োগের আগে প্রতিষ্ঠানটির সংগঠন কাঠামো ছিল সরলরৈখিক সংগঠন।

বিজ্ঞাপন

যে সংগঠন কাঠামোর কর্তৃত্ব রেখা ব্যবস্থাপনার সর্বোচ্চ স্তর থেকে ক্রমান্বয়ে নিচের দিকে সরল রেখার আকারে নেমে আসে, তাকে সরলরৈখিক সংগঠন বলে। এ ক্ষেত্রে কর্তৃত্বরেখার বিভিন্ন পর্যায়ের কর্তাব্যক্তিরা স্ব স্ব ক্ষেত্রে অধস্তন ব্যক্তিদের ওপর অতিমাত্রায় কর্তৃত্বশালী থাকে। এটি সবচেয়ে সহজ প্রকৃতির সংগঠন কাঠামো। জটিলতামুক্ত ও সীমিত আয়তনবিশিষ্ট প্রতিষ্ঠানে এরূপ সংগঠন কাঠামো অধিক ব্যবহৃত হয়।

উদ্দীপকের শহীদ আলম একটি প্রতিষ্ঠানের নির্বাহী পরিচালক। তাঁর অধীনে ৪ জন ব্যবস্থাপক ও ১৩ জন শাখা ব্যবস্থাপক আছেন। প্রাথমিক পর্যায়ে তাঁদের নিয়ে তিনি কোম্পানি পরিচালনা করতেন। তাই বলা যায়, পরামর্শক নিয়োগের আগে প্রতিষ্ঠানের সংগঠন কাঠামো ছিল সরলরৈখিক সংগঠন।

ঘ. উদ্দীপকের সরলরৈখিক সংগঠনের উদ্ভূত সমস্যা নিরসন করে পরবর্তীকালে সরলরৈখিক ও পদস্থ কর্মী সংগঠনে রূপান্তর করায় প্রতিষ্ঠানের উন্নতি সম্ভব হয়েছে।

যে সংগঠন কাঠামোতে সরলরৈখিক নির্বাহীকে সহযোগিতা করার জন্য উপদেষ্টা বা বিশেষজ্ঞ কর্মীর ব্যবহার করা হয়। তাকে সরলরৈখিক ও পদস্থ কর্মী সংগঠন বলে।

উদ্দীপকে পরামর্শক নিয়োগের কারণে প্রতিষ্ঠানটির সংগঠন কাঠামোর পরিবর্তন ঘটেছে। পরামর্শক নিয়োগের ফলে সরলরৈখিক সংগঠন থেকে পরিবর্তন হয়ে সরলরৈখিক ও পদস্থ কর্মী সংগঠন হয়েছে। সরলরৈখিক ও পদস্থ কর্মী সংগঠনে দুই ধরনের কর্মী থাকে। একদল সরলরৈখিক কর্মী বা নির্বাহী এবং অন্যদল উপদেষ্টা কর্মী। দুই ধরনের কর্মী থাকায় এ ক্ষেত্রে সরলরৈখিক কর্তৃত্ব ও সহযোগী কতৃ‌র্ত্ব বিরাজ করে। এ ক্ষেত্রে সংগঠনের কর্তৃত্বরেখা ব্যবস্থাপনার শীর্ষস্তর হতে ক্রমান্বয়ে নিচু স্তরে নেমে আসে। এ ক্ষেত্রে সরলরৈখিক কর্মকর্তার পাশে উপদেষ্টা কর্মীরা প্রয়োজনীয় অবস্থান গ্রহণ করেন। দুই ধরনের কর্মী থাকলেও সরলরৈখিক কর্মকর্তার‌িই এ ক্ষেত্রে ব্যবস্থাপনার মূল দায়িত্বে নিয়োজিত থাকেন এবং পদস্থ বা সহযোগী কর্মীদের কাজ হলো সরলরৈখিক কর্মকর্তাকে প্রয়োজনীয় পরামর্শ ও উপদেশ প্রদান এবং কার্যক্ষেত্রে সহযোগিতা করা।

তাই বলা যায়, উদ্দীপকে পরামর্শক নিয়োগের কারণে কোম্পানি সংগঠন কাঠামোতে পরিবর্তন ঘটেছে। অর্থাৎ সরলরৈখিক সংগঠন কাঠামো থেকে পরিবর্তন হয়ে সরলরৈখিক ও পদস্থ কর্মী সংগঠন হয়েছে, যা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নকে ত্বরান্বিত করতে সহায়ক ভূমিকা রেখেছে।

শিক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন