default-image

রোটারি বাংলাদেশ প্রায়োরিটি কমিউনিটি প্রজেক্টের আওতায় দেশে অবহেলিত ৫০০ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অত্যাধুনিক কমফোর্ট সেন্টার নির্মাণ করবে। গত বৃহস্পতিবার কক্সবাজারে রোটারির প্রেসিডেন্ট ও সহকারী গভর্নরদের দুই দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মসূচিতে এই কার্যক্রমের ঘোষণা দেওয়া হয়।
অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন রোটারি গভর্নর (২০২১-২২) মুতাসিম বিল্লাহ ফারুকী, রোটারি গভর্নর এম রুবায়েত হোসেন, ড. বেলাল উদ্দিন আহমেদ, ডিএফএফএল রোকেয়া ফারুকী, প্রধান উপদেষ্টা মাগফুর উদ্দিন আহমেদ, সাবেক গভর্নর ইসতিয়াক এ জামান, এম হাফিজুল্লাহ, সাফিনা রহমান, শওকত হোসেন, মোহাম্মদ আইউব, মো. খাইরুল আলম, ডিজিএন এম এ ওহাব, ডিজিই আবু ফয়েজ খান চৌধুরী, ইভেন্ট চেয়ার ইব্রাহিম খলিল আল জায়েদ পিনাক, রোটারি নেতা কামরুজ্জামান খান, দাতা মাগফুর, আরিফুল হক (জেবটিক), এ কে এম মহিউদ্দিন, সাবেক গভর্নর এবং রোটারি নেতৃবৃন্দ।
রোটারির আধুনিক এই কমফোর্ট সেন্টারগুলোয় উন্নত মানের টয়লেট স্থাপন ছাড়া নারী শিক্ষার্থীদের প্রয়োজন বিবেচনা করে মেনেস্ট্রুয়াল হাইজিন ম্যানেজমেন্ট রুম ও স্যানিটারি ন্যাপকিনের ভেন্ডিং মেশিন স্থাপন করবে। রোটারি ইন্টারন্যাশনাল ও দেশের রোটারি ক্লাবগুলোর যৌথ অর্থায়নে এই প্রজেক্ট বাস্তবায়িত হবে।
বক্তারা জাতিসংঘঘোষিত সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এমডিজি) ও টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) বাস্তবায়নে রোটারি ইন্টারন্যাশনালের ভূমিকার বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন। বাংলাদেশে এমডিজি ও এসডিজি বাস্তবায়নে রোটারি ইন্টারন্যাশনাল বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখার জন্য অর্থায়ন ও স্বেচ্ছাসেবা দেওয়ার বিষয়ে সচেষ্ট রয়েছে।

বিজ্ঞাপন
শিক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন