default-image

সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী রাজীব সরকারের ওপর হামলার ঘটনায় ছাত্রলীগের ৯ নেতা-কর্মীকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মুহাম্মদ ইশফাকুল হোসেন স্বাক্ষরিত এক দাপ্তরিক আদেশ সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

ওই দাপ্তরিক আদেশ থেকে আরও জানা যায়, গত ২৩ মার্চ বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে রাজীব সরকারের ওপর অতর্কিতে হামলা হয়। রাজীব বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী এবং ওই বিভাগ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক। হামলার ওই ঘটনা বিশ্ববিদ্যালয়ের শৃঙ্খলার পরিপন্থী—এ অভিযোগ এনে এর সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকা ছাত্রলীগের ৯ নেতা-কর্মীকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। এ ছাড়াও ওই শিক্ষার্থীদের কাছে কারণ দর্শানোর নোটিশ পাঠানো হয়েছে। কেন প্রচলিত বিধি অনুসারে তাদের শাস্তি দেওয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে দেওয়া হয়েছে ওই নোটিশে। আগামী সাত কার্যদিবসের মধ্যে প্রক্টর জহির উদ্দীন আহমদ বরাবর ওই নোটিশের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে বহিষ্কার ও নোটিশ দেওয়ার বিষয়টি সোমবার বিকেলে প্রথম আলোকে নিশ্চিত করেন প্রক্টর জহির উদ্দীন।

বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাময়িক বহিষ্কৃত শিক্ষার্থীরা হলেন, সমাজকর্ম বিভাগের শিক্ষার্থী মো. মোস্তাকিম আহমদ, ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষের আইপিই বিভাগের মাহবুব আল আমিন ও লোকপ্রশাসন বিভাগের শিক্ষার্থী এস এম আবদুল বারী সজিব, ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের লোকপ্রশাসন বিভাগের সুমন মিয়া, ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের ইংরেজি বিভাগের মো. রিশাদ ঠাকুর, বাংলা বিভাগের কাওসার আহমেদ সোহাগ, লোকপ্রশাসন বিভাগের সুজন চন্দ্র বৈষ্ণব, সমুদ্রবিজ্ঞান বিভাগের মো. আমিনুল ইসলাম ও ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের সিএসই বিভাগের ইফতেখার আহমেদ রানা। এঁদের মধ্যে মোস্তাকিম আহমদ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সহসভাপতি। অন্যরা ছাত্রলীগের বিভাগীয় কমিটির নেতা-কর্মী।

প্রসঙ্গত, ছাত্রলীগের অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জেরে গত ২৩ মার্চ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে রাজীব সরকারের ওপর হামলার ঘটনা ঘটে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন