default-image

টেলিনর, গ্রামীণফোন ও ইউনিসেফ বাংলা ভাষার লার্নিং রিসোর্স প্ল্যাটফর্ম ‘ডিজিওয়ার্ল্ড’ বাংলা চালু করেছে। প্ল্যাটফর্মটি ৫ থেকে ১৬ বছরের শিশুদের নিজের ভাষায় সঠিকভাবে অনলাইন মাধ্যম বুঝতে এবং নিরাপদে অনলাইন মাধ্যম ব্যবহারে সাহায্য করবে।

ইন্টারঅ্যাকটিভ গেম এবং নিজের মতো করে জ্ঞানলাভের জন্য ডিজিটাল লাইব্রেরি ব্যবহারের মাধ্যমে উপভোগ্য উপায়ে শিশুদের শেখার অভিজ্ঞতা গ্রহণে সহায়তা করবে ডিজিওয়ার্ল্ড বাংলা। এই প্ল্যাটফর্ম থেকে শিক্ষকেরা ওয়ার্কশিট ডাউনলোড করতে পারবেন। এই ওয়ার্কশিটগুলো দিয়ে তারা অভিভাবকদের জন্য উপকারী সেশন ও গাইডলাইন পরিকল্পনা করতে পারবেন, যা অনলাইন বিশ্বে শিশুদের পদচারণে সহায়তা করবে।

ডিজিওয়ার্ল্ড বাংলা প্ল্যাটফর্মে থাকা রিসোর্সগুলো শিশুরা ব্যবহার করতে পারবে।

কারিকুলামটি শেষ করার পর শিশুরা সার্টিফিকেটও পাবে, যেখানে তাদের অর্জন ও ডিজিটাল রেজিলিয়্যান্সের বিষয়গুলো উল্লেখ থাকবে। কোভিড-১৯–এর দীর্ঘমেয়াদি প্রভাব আমাদের শিশুদের পদচারণ ও বিকাশকে ডিজিটাল স্ক্রিনের মধ্যে আবদ্ধ করে ফেলেছে। ইন্টারনেটের ব্যবহার বৃদ্ধির ফলে কৌতূহলী স্বভাবের শিশুরা অনেক নতুন বিষয়ের মুখোমুখি হচ্ছে, যা তাদের অনলাইনে ঝুঁকির আশঙ্কা বাড়িয়ে তুলেছে।

এ ক্ষেত্রে ডিজিওয়ার্ল্ডের লক্ষ্য শিশুদের সুরক্ষায় কাজ করা এবং শিশুরা যাতে নিজেদের বিকাশে নিরাপদভাবে ইন্টারনেটের অফুরন্ত সম্ভাবনা কাজে লাগাতে পারে, সে ক্ষেত্রে ভূমিকা রাখা।

বিজ্ঞাপন

গ্রামীণফোনের প্রধান নির্বাহী ইয়াসির আজমান বলেন, ‘আমাদের তরুণদের অবশ্যই সঠিকভাবে ডিজিটাল মাধ্যম ব্যবহার করতে হবে এবং তাদের প্রযুক্তিজ্ঞানসম্পন্ন হতে হবে। এ দক্ষতা অর্জনের মাধ্যমেই তারা যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যেতে পারবে। চাইল্ড অনলাইন সেফটির সঙ্গে ডিজিওয়ার্ল্ড বাংলা প্ল্যাটফর্মটি শিশুদের অনলাইন নিরাপত্তার বিষয়টিকে জোরদার করবে। ফলে শিশু, অভিভাবক, শিক্ষকেরা অনলাইনে নিরাপদ ও দায়িত্বশীল থাকতে সঠিক টুল ও প্রাসঙ্গিক নলেজ ব্যবহার করতে পারবেন।’

মন্তব্য করুন