বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

স্কুলে আবার ক্লাস শুরু হওয়ায় দীর্ঘদিন পর বন্ধু ও সহপাঠীদের কাছে পেয়ে আনন্দিত ও উচ্ছ্বসিত শিক্ষার্থীরা। রাজধানী ঢাকার প্রাথমিক ক্লাসের শিক্ষার্থীরা দীর্ঘদিন পর শ্রেণিকক্ষ ফেরার অভিজ্ঞতা জানিয়েছে।

৯ বছর বয়সী আফসানা মিমি জানিয়েছে, ‘লেখাপড়া খুব গুরুত্বপূর্ণ। আমি শিক্ষক হতে চাই। যখন আমি বাড়িতে থেকে লেখাপড়া করতাম, তখন সহপাঠীদের সঙ্গে দেখা করতে পারিনি; শিক্ষকদের আমার কাজ দেখাতে পারিনি। একা একা পড়াশোনা করতে ভালো লাগেনি আমার। এখন আমি স্কুলে ফিরে আবার সবার সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারছি। সত্যিই স্কুল খুব উপভোগ করি।’

default-image

আবিদ সরকারের বয়স ১১। সে জানিয়েছে, ‘দীর্ঘদিন পর স্কুল আবার খোলার খবরে আমি খুব খুশি হয়েছিলাম। আমার কাছে অংক ক্লাস আর খেলার সময়টা স্কুলের সেরা সময়। তবে স্কুলের সবকিছুই আমার ভালো লাগে। ক্লাস শেষ হওয়ার পরে আমি সাধারণত বন্ধুদের সঙ্গে খেলতে মাঠে ছুটে যাই।’

default-image

৯ বছর বয়সী রিয়া মনি বলেছে, ‘আমি স্কুলের সবকিছুই পছন্দ করি। সব ক্লাস আমার পছন্দ। স্কুলে থাকার সেরা দিক হলো, শিক্ষিকার কাছ থেকে শেখা। কারণ আমি তাঁকে অনেক পছন্দ করি...। আমি ভীষণ খুশি হয়েছিলাম যখন শুনলাম স্কুল আবার খুলবে। আমি আবার আমার বন্ধু এবং শিক্ষকদের সঙ্গে দেখা করতে পারব। বড় হয়ে আমি পুলিশ হতে চাই এবং অন্যদের সাহায্য করতে চাই।’

default-image

ফাতেমা আক্তারের বয়স ৯ বছর। স্কুল খোলার বিষয়ে সে জানিয়েছে, ‘স্কুলে ফিরে যাওয়ার সবচেয়ে ভালো দিক হলো, বন্ধু ও শিক্ষকদের সঙ্গে দেখা করতে পারছি, সবার সঙ্গে পড়াশোনা করতে এবং খেলতে পারছি। বাড়িতে থেকে পড়াশোনা করতে আমার একদম ভালো লাগত না। বড় হয়ে আমি ডাক্তার হতে চাই যাতে মানুষের সেবা করতে পারি।’

শিক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন