বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

স্টাইপেন্ডিয়াম হাঙ্গেরিকামের ওয়েবসাইট থেকে আবেদন ফরম সংগ্রহ করে আবেদন করা যাবে। ২০২২ সালের ১৫ জানুয়ারির মধ্যে পুরো আবেদনপ্রক্রিয়াটি শেষ করতে হবে।

এ বছর বাংলাদেশ থেকে কতজন এ স্কলারশিপ পাবেন বা কতজন বাংলাদেশিকে এই স্কলারশিপ দেওয়া হবে, তা বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ নেই।

হাঙ্গেরি সরকার ২০১৩ সাল থেকে স্টাইপেন্ডিয়াম হাঙ্গেরিকাম স্কলারশিপ দিয়ে আসছে। ২০১৯ সালে বাংলাদেশে চালু হয়েছে এই স্কলারশিপ। এই স্কলারশিপের অধীন টিউশন ফি সম্পূর্ণ ফ্রি। পাশাপাশি পাওয়া যাবে স্বাস্থ্যবিমাও। তবে আন্ডারগ্র্যাজুয়েট, গ্র্যাজুয়েট ও ডক্টরাল—তিনটির যেকোনো একটিতে আবেদন করতে পারবেন শিক্ষার্থীরা।

স্টাইপেন্ডিয়াম হাঙ্গেরিকাম স্কলারশিপের ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, প্রতিবছর ৫ মহাদেশের প্রায় ৮০টি দেশের ৫ হাজার বিদেশি শিক্ষার্থী এ বৃত্তি নিয়ে পড়াশোনা করছেন।

default-image

বৃত্তির লক্ষ্য
এই বৃত্তির লক্ষ্য হলো হাঙ্গেরিতে বিদেশি শিক্ষার্থীদের সংখ্যা বাড়ানো এবং হাঙ্গেরির উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে শীর্ষ বিদেশি শিক্ষার্থীদের আকৃষ্ট করতে উত্সাহিত করা।

স্নাতক, স্নাতকোত্তর, ওয়ান টায়ার মাস্টার্স ও ডিগ্রিহীন প্রোগ্রামে যেসব সুবিধা পাওয়া যাবে

  • পড়াশোনার জন্য টিউশন ফি ফ্রি।

  • পড়াশোনা শেষ না হওয়া পর্যন্ত জীবনযাত্রার ব্যয় নির্বাহের জন্য মাসিক ৪৩ হাজার ৭০০ হাফ (প্রায় ১১ হাজার ৫০০ টাকা) দেওয়া হবে।

  • ডরমিটরিতে বিনা মূল্যে আবাসনসুবিধা।

  • স্বাস্থ্যবিমার সুবিধা।

default-image

ডক্টরাল প্রোগ্রামে যেসব সুবিধা পাওয়া যাবে

  • পড়াশোনার জন্য টিউশন ফি ফ্রি।

  • পড়াশোনা শেষ না হওয়া পর্যন্ত জীবনযাত্রার ব্যয় নির্বাহের জন্য চার সেমিস্টারের প্রথম পর্যায়ে মাসিক ১ লাখ ৪০ হাজার হাফ (প্রায় ৩৬ হাজার ৮০০ টাকা) দেওয়া হবে। প্রথম পর্যায়ে মাসিক ১ লাখ ৮০ হাজার হাফ (প্রায় ৪৭ হাজার ৩০০ টাকা) করে দেওয়া হবে।

  • ডরমিটরিতে বিনা মূল্যে আবাসনসুবিধা।

  • স্বাস্থ্যবিমার সুবিধা।

default-image

প্রয়োজনীয় তথ্য

  • স্নাতক, স্নাতকোত্তর, ডক্টরাল ও নিউক্লিয়ার এনার্জেটিকসে আবেদনের জন্য হোস্ট ইউনিভার্সিটির সুপারভাইজারের স্টেটমেন্ট অব অ্যাকসেপট্যান্স আবেদনের সঙ্গে অ্যাটাচ করতে হবে। আবেদন সাবমিট করার আগে এই ওয়েবসাইট ভিজিট করতে হবে। মোট ১৪০টি বৃত্তির মধ্যে ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষ থেকে নিউক্লিয়ার এনার্জেটিকসে ৩০টি বৃত্তি সংরক্ষিত থাকবে।

  • আবেদনকারীর বয়স চলতি বছরের ৩১ আগস্ট ১৮ হতে হবে।

  • হাঙ্গেরি কর্তৃপক্ষের কাছে এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে অনলাইনে আবেদন করতে হবে।

  • বাংলাদেশ সরকারের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে এই লিংকের মাধ্যমে আবেদন করতে হবে। এই লিংক ২০২২ সালের ১৫ জানুয়ারি বিকেল ৪টা পর্যন্ত চালু থাকবে।

  • আবেদনের আগে বিজ্ঞপ্তিটি ভালো করে পড়ে নিতে হবে।

  • হাঙ্গেরির বিভিন্ন শহরের জীবনযাত্রার ব্যয় এই লিংকের মাধ্যমে জানা যাবে।

  • আবেদনপত্রের হার্ড কপি সচিবালয়ের ২ নম্বর গেট–সংলগ্ন অভ্যর্থনাকক্ষে সকাল ১০টা থেকে বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত জমা দেওয়া যাবে। খামের ওপর প্রেরক, প্রাপক, আবশ্যিকভাবে ID/Tracking Number এবং প্রোগ্রামের নাম (স্নাতক/ স্নাতকোত্তর/ডক্টরাল/নিউক্লিয়ার এনার্জেটিকস) উল্লেখ করতে হবে। হার্ড কপি মন্ত্রণালয়ে জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ১৬ জানুয়ারি ২০২২, বিকেল ৪টা। ২ নম্বর গেট ব্যতীত অন্য কোনো গেটে আবেদন জমা না দেওয়ার অনুরোধ করা হলো।

  • প্রার্থী মনোনয়নের ক্ষেত্রে Language Proficiency (English)-এর ওপর গুরুত্ব দেওয়া হবে। স্নাতক পর্যায়ে অপেক্ষাকৃত কম বয়সী আবেদনকারীদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।

  • স্নাতক, স্নাতকোত্তর ও ডক্টরাল—তিনটির যেকোনো একটিতে আবেদন করতে পারবেন শিক্ষার্থীরা। একাধিক আবেদন করলে আবেদনপত্র বাতিল বলে গণ্য হবে।

  • অসম্পূর্ণ আবেদন গ্রহণযোগ্য নয়। আবেদনের হার্ড কপি মন্ত্রণালয়ে জমা না দেওয়া হলে আবেদন বিবেচনা করা হবে না।

  • প্রার্থীদের প্রাথমিক বাছাই ও চূড়ান্তকরণের ক্ষমতাসংক্রান্ত বিষয় কমিটি সংরক্ষণ করে।

শিক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন