default-image

অধ্যায় ৩

১৪. পাওনা টাকার পরিমাণ জানা যায় কোন হিসাব পদ্ধতি ব্যবহার করে?

ক. একতরফা দাখিলা পদ্ধতি

খ. দুই তরফা দাখিলা পদ্ধতি

গ. মিশ্র দাখিলা পদ্ধতি

ঘ. বেদাখিলা পদ্ধতি

১৫. সঠিক কর নির্ধারণ দুই তরফা দাখিলা পদ্ধতির কী?

ক. সুবিধা খ. উদ্দেশ্য

গ. বৈশিষ্ট্য ঘ. লক্ষ্য

১৬. হিসাবচক্রের কোন ধাপে আর্থিক বিবরণী প্রস্তুত করা হয়?

ক. চতুর্থ খ. ষষ্ঠ

গ. অষ্টম ঘ. দশম

১৭. হিসাবচক্রের প্রথম ধাপ কোনটি?

ক. লেনদেন শনাক্তকরণ

খ. লেনদেন বিশ্লেষণ

গ. জাবেদাভুক্তকরণ

ঘ. খতিয়ান

১৮. হিসাবচক্রের তৃতীয় ধাপ কোনটি?

ক. লেনদেন চিহ্নিতকরণ

খ. হিসাব খাত নির্ণয়

গ. জাবেদাভুক্তকরণ

ঘ. খতিয়ান

১৯. হিসাবচক্রের কোন ধাপে হিসাবের গাণিতিক শুদ্ধতা যাচাই করা হয়?

ক. পঞ্চম ধাপ খ. দ্বিতীয় ধাপ

গ. তৃতীয় ধাপ ঘ. চতুর্থ ধাপ

২০. হিসাবচক্রের বিভিন্ন ধাপগুলো রক্ষা করে পূর্ববর্তী ও পরবর্তী বছরের মধ্যে—

ক. সমতা খ. ধারাবাহিকতা

গ. যোগসূত্র ঘ. ভিন্নতা

২১. রেওয়ামিল হিসাবচক্রের কততম ধাপ?

ক. ষষ্ঠ খ. পঞ্চম

গ. চতুর্থ ঘ. তৃতীয়

২২. হিসাব কার্যক্রমের ধাপ বা হিসাবচক্র অনুযায়ী কোনটি সঠিক?

ক. রেওয়ামিল–খতিয়ান–জাবেদা

খ. খতিয়ান–রেওয়ামিল–জাবেদা

গ. জাবেদা–রেওয়ামিল–খতিয়ান

ঘ. জাবেদা–খতিয়ান–রেওয়ামিল

বিজ্ঞাপন

২৩. হিসাবচক্রের সমন্বয় দাখিলা কোনটির পরে দেওয়া হয়?

ক. রেওয়ামিল খ. খতিয়ান

গ. কার্যপত্র ঘ. আর্থিক বিবরণী

২৪. হিসাবচক্রের ঐচ্ছিক ধাপ কোনটি?

ক. প্রথমটি খ. দ্বিতীয়টি

গ. সপ্তমটি ঘ. দশমটি

২৫. কার্যপত্র তৈরি করা হয় কখন?

ক. আর্থিক বিবরণী প্রস্তুতের পর

খ. রেওয়ামিল প্রস্তুতের পূর্বে

গ. আর্থিক বিবরণী প্রস্তুতের পূর্বে

ঘ. সমন্বয় দাখিলার পূর্বে

২৬. হিসাবচক্রের কোন ধাপে প্রতিটি ঘটনাকে বিশ্লেষণ করে লেনদেন হিসেবে চিহ্নিত করা হয়?

ক. লেনদেন শনাক্তকরণ

খ. লেনদেন বিশ্লেষণ

গ. জাবেদাভুক্তকরণ

ঘ. খতিয়ানে স্থানান্তর

২৭. হিসাবচক্রের সর্বশেষ ধাপ কোনটি?

ক. হিসাব-পরবর্তী রেওয়ামিল

খ. সমন্বয় দাখিলা

গ. কার্যপত্র ঘ. সমাপনী দাখিলা

২৮. আমাদের দেশে হিসাবরক্ষণের বিশেষ ব্যবস্থা কী?

ক. একতরফা দাখিলা পদ্ধতি

খ. দুই তরফা দাখিলা পদ্ধতি

গ. সমীকরণ পদ্ধতি

ঘ. বহু ঘরা পদ্ধতি

সঠিক উত্তর

অধ্যায় ৩: ১৪. খ ১৫. ক ১৬. গ ১৭. ক

১৮. গ ১৯. ক ২০. খ ২১. খ ২২. ঘ ২৩. ক ২৪. গ ২৫. ঘ ২৬. খ ২৭. ক ২৮. ক

শিক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন