default-image

দেশের সরকারি ও বেসরকারি মেডিকেল কলেজে ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে প্রথম বর্ষ এমবিবিএস কোর্সের ভর্তি পরীক্ষা স্থগিত চেয়ে করা রিট আবেদন খারিজ হয়েছে। বিচারপতি মো. খসরুজ্জামান ও বিচারপতি মো. মাহমুদ হাসান তালুকদারের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ আজ শুনানি নিয়ে রিটটি উত্থাপিত হয়নি বলে খারিজ করে দিয়েছেন।
জনস্বার্থে রাজধানীর উত্তরার বাসিন্দা তৈমুর খান ২১ মার্চ ওই রিট আবেদনটি করেন, যা আজ শুনানির জন্য ওঠে।

শুনানিতে রিটের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মুনতাসীর মাহমুদ রহমান। আর রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিপুল বাগমার।

বিপুল বাগমার বলেন, হাইকোর্ট রিটটি উত্থাপিত হয়নি বলে খারিজ করে দিয়েছেন। ফলে ২ এপ্রিল মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠানে কোনো বাধা নেই। রাষ্ট্রের এই আইন কর্মকর্তা জানান, ১ লাখ ২২ হাজার ৮৭৪ মেডিকেল ভর্তি–ইচ্ছুক শিক্ষার্থীরা পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছেন। ১৯টি কেন্দ্রে ৫৫টি ভেন্যুর ৭৫টি হলে এ পরীক্ষা হবে। স্বাস্থ্যবিধি যথাথ অনুসরণ করে পরীক্ষার প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। এ অবস্থায় রিট গ্রহণযোগ্য নয়।

বিজ্ঞাপন
default-image

স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, দেশের সরকারি ও বেসরকারি মেডিকেল কলেজে ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে প্রথম বর্ষ এমবিবিএস কোর্সের ভর্তি পরীক্ষা আগামী ২ এপ্রিল অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। কিন্তু করোনা পরিস্থিতির কারণে এই তারিখ পেছানোর দাবি জানিয়েছে মেডিকেল ভর্তি-ইচ্ছুক শিক্ষার্থীদের একটি অংশ।

রিট দায়েরের পর আইনজীবী মুনতাসির মাহমুদ রহমান প্রথম আলোকে বলেছিলেন, আকস্মিক করোনোভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার প্রেক্ষাপটে পরীক্ষা স্থগিত চেয়ে রিটটি করা হয়েছিল। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ অন্য সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো এই সেশনে ভর্তির কোনো কার্যক্রম শুরু করেনি। অন্য সব বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি কার্যক্রম শুরুর অনেক আগেই মেডিকেলে ভর্তি কার্যক্রম সম্পন্ন হলে শিক্ষার্থীরা পরবর্তী সময়ে তাঁদের অন্য কোনো বিষয়ে ও বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ সীমিত হয়ে যাবে, এসব যুক্তিতে রিটটি করা হয়েছিল।

ভর্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন