default-image

২০২০ সালের (বিশেষ মূল্যায়ন) আলিম পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে ৭৫০ জন শিক্ষার্থী বৃত্তি পাবেন। এদের মধ্যে ১৫০ শিক্ষার্থী পাবেন মেধাবৃত্তি ও ৬০০ শিক্ষার্থী সাধারণ বৃত্তি পাবেন। গতকাল সোমবার (১৯ এপ্রিল) আলিম পরীক্ষার ফলের ভিত্তিতে বৃত্তিসংক্রান্ত এক আদেশে মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তর এসব কথা জানায়।

মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তর জানিয়েছে, ২৭ এপ্রিলের মধ্যে বৃত্তি পাওয়া শিক্ষার্থীদের গেজেট প্রকাশ করতে মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডকে বলেছে মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তর। আলিম পরীক্ষার ফলের ভিত্তিতে মেধাবৃত্তি পাওয়া ১৫০ জন শিক্ষার্থী প্রতি মাসে ৭৫০ টাকা এবং বার্ষিক এককালীন ১ হাজার ৮০০ টাকা পাবেন। সাধারণ বৃত্তি পাওয়া আলিম পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ৬০০ শিক্ষার্থী প্রতি মাসে ৩৫০ টাকা এবং বার্ষিক এককালীন ৭৫০ টাকা করে পাবেন। কোর্সের মেয়াদ অনুযায়ী শিক্ষার্থীরা ৩/৪/৫ বছর পর্যন্ত বৃত্তি পাবেন।

বৃত্তি পাওয়া শিক্ষার্থীদের টাকা জিটুপি পদ্ধতিতে ইএফটির মাধ্যমে সরাসরি শিক্ষার্থীদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে পাঠানো হবে। বৃত্তির গেজেট (২৭ এপ্রিল প্রকাশ হওয়ার কথা) প্রকাশের সাত দিনের মধ্যে অনলাইন সুবিধাসম্পন্ন ব্যাংকে অ্যাকাউন্ট খুলে হিসাব নম্বর ভর্তিকৃত প্রতিষ্ঠানে জমা দিতে হবে শিক্ষার্থীদের।

বিজ্ঞাপন

এর আগে ১৪ এপ্রিল মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি) জানায়, ২০২০ সালের উচ্চমাধ্যমিক সার্টিফিকেট (এইচএসসি) পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে দেশের সব মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড মেধাবৃত্তি ও সাধারণ বৃত্তি পাবেন ১০ হাজার ৫০১ জন। এইচএসসি পরীক্ষায় মেধাবৃত্তি পেয়েছেন মোট ১ হাজার ১২৫ জন। সাধারণ বৃত্তি পেয়েছেন ৯ হাজার ৩৭৬ জন।

এইচএসসিতে মেধাবৃত্তি পাওয়া শিক্ষার্থীরা মাসে ৮২৫ টাকা ও বছরে এককালীন ১ হাজার ৮০০ টাকা পাবেন। সাধারণ বৃত্তিপ্রাপ্তরা মাসে ৩৭৫ টাকা এবং বছরে এককালীন ৭৫০ টাকা পাবেন। জিটুপি পদ্ধতিতে ইএফটির মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে বৃত্তির টাকা পাঠানো হবে। ২২ এপ্রিলের মধ্যে বৃত্তি পাওয়া শিক্ষার্থীদের তালিকাসহ গেজেট প্রকাশ করতে ৯টি সাধারণ ধারার শিক্ষা বোর্ডকে বলেছে শিক্ষা অধিদপ্তর। গেজেট প্রকাশের ৭ দিনের মধ্যে বৃত্তি পাওয়া শিক্ষার্থীদের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খুলে তার তথ্য ভর্তি হওয়া প্রতিষ্ঠানে জমা দিতে হবে। বৃত্তির টাকা ২০২০-২১ অর্থবছরে রাজস্ব বাজেটের বৃত্তি-মেধা বৃত্তি খাত থেকে নির্বাহ করা হবে।

পরীক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন