বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ঢাকা শিক্ষা বোর্ড থেকে এসব তথ্য জানিয়ে বুধবার এক বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের ফরম পূরণের জন্য প্রতিষ্ঠান থেকে এসএমএস পাঠানোর সময় ৩১ আগস্ট পর্যন্ত ও শিক্ষার্থীদের ফি পরিশোধের সময় ৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হলো। কোনো কলেজ এ সময়ের মধ্যে শিক্ষার্থীদের ফরম পূরণে ব্যর্থ হলে তার দায়ভার প্রতিষ্ঠানের প্রধানকে বহন করতে হবে বলেও জানিয়েছে ঢাকা বোর্ড।

১২ আগস্ট থেকে এইচএসসি ও আলিম পরীক্ষার ফরম পূরণ শুরু হয়। ২৫ আগস্ট পর্যন্ত এসব পরীক্ষার ফরম পূরণের সুযোগ দেওয়া হলেও সে সময় আবারও বাড়ানো হলো।

২০২১ সালে এইচএসসি পরীক্ষার জন্য কোনো নির্বাচনী পরীক্ষা হচ্ছে না। তাই - সংক্রান্ত কোনো ফি আদায় করা যাবে না। ৩০ আগস্ট পর্যন্ত ফরম পূরণের নির্দেশাবলি মেনে এসএমএস পাওয়া শিক্ষার্থীরা ফি পরিশোধ করতে পারবে। কোনো কারিগরি ত্রুটির কারণে কোনো শিক্ষার্থী এসএমএস না পেলে বোর্ডের ওয়েবসাইটে Student panel থেকে তার ফরম পূরণের Status যেকোনো সময় দেখতে পারবে।

default-image

২০২১ সালের এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের ফি নির্ধারণ করে দিয়েছে সরকার। বিজ্ঞান বিভাগে ১ হাজার ১৬০ টাকা, মানবিক ও ব্যবসা শিক্ষা বিভাগে ১ হাজার ৭০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, কোনো অবস্থায় নির্ধারিত ফির বাইরে অতিরিক্ত অর্থ আদায় করা যাবে না। এ-সংক্রান্ত কোনো তথ্য দৃষ্টিগোচর হলে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের ফরম পূরণ প্যানেল বন্ধ করাসহ প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

কেবল বৈধ রেজিস্ট্রেশন করা শিক্ষার্থীরা আবেদন ফরম পূরণ করতে পারবে। কোনো পরীক্ষার্থী তার রেজিস্ট্রেশন ছাড়া কোনো বিষয় বা বিষয়গুলোয় পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করলে সেই বিষয়ের পরীক্ষা বাতিল করা হবে। নিয়মিত-অনিয়মিত বা আংশিক বিষয়ে অকৃতকার্য অথবা আবশ্যিক বিষয়ে অকৃতকার্য, প্রাইভেট পরীক্ষার্থী, জিপিএ উন্নয়ন পরীক্ষার্থী অর্থাৎ সব ধরনের পরীক্ষার্থীকে ফরম পূরণ করতে হবে।

ফরম পূরণ ছাড়া পরীক্ষার্থীর ফলাফল প্রকাশের সুযোগ নেই উল্লেখ করে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্রতিষ্ঠানের নির্বাচিত পরীক্ষার্থীরাই ফরম পূরণের জন্য ফি জমা দিতে পারবে। পরীক্ষার্থী বা তার অভিভাবক এ বছর চালু হওয়া সোনালী ই-সেবা নগদ, বিকাশ, রকেট, ইউ-পে, সোনালী ই ওয়ালেটের মাধ্যমে সুবিধা পাবে।

কন্ট্রোল রুম

এইচএসসি ফরম পূরণসংক্রান্ত কোনো সমস্যা বা অতিরিক্ত অর্থ আদায় করলে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের কন্ট্রোল রুমে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। ফোন-০২-৯৬৬৯৮১৫, ০২-৫৬৬১১০১৮১, ০২-৫৮৬১০২৪৮, ০১৬১০৭১১৩০৭, ০১৬২৫৬৩৮৫০৮, ০১৭২২৭৯৭৯৬৩-তে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।

এইচএসসির ফরম পূরণ: কোন বিভাগে কত ফি

এর আগে গত ১৫ জুলাই অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেছিলেন, করোনা পরিস্থিতি কমে এলে সংক্ষিপ্ত সিলেবাস ও সংক্ষিপ্ত সময়ের মধ্যে নভেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহে এসএসসি এবং ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহে এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে। এসএসসি ও এইচএসসিতে মূল্যায়ন হবে গ্রুপভিত্তিক। বাংলা, ইংরেজির মতো আবশ্যিক বিষয়ের মূল্যায়ন হবে না। অ্যাসাইনমেন্টের মাধ্যমে শেষ করা হবে সংক্ষিপ্ত সিলেবাস। যদি পরীক্ষা না নিতে পারি, তাহলে অ্যাসাইনমেন্ট এবং সাবজেক্ট ম্যাপিংয়ের মাধ্যমে ফল প্রকাশ করা হবে। পরীক্ষার সময় কমবে সংবাদ সম্মেলনে ওই দিন শিক্ষামন্ত্রী জানান, এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে ২৪-৩০টি অ্যাসাইনমেন্টের ভিত্তিতে তিন ঘণ্টার পরীক্ষা দেড় ঘণ্টায় হবে। আর ১০০ নম্বরের পরীক্ষা হবে ৫০ নম্বরে। প্রতিবছরে যেমন প্রশ্ন হয়, এবারও তেমন প্রশ্নই থাকবে। কিন্তু চয়েস অনেক বেশি থাকবে। এসএসসির সাবজেক্ট ম্যাপিং জেএসসির বিষয়গুলোর ওপর নির্ভর করে মূল্যায়ন হবে।

দেশে করোনাভাইরাসের প্রথম রোগী শনাক্ত হয় গত বছরের ৮ মার্চে।করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করে সরকার। দফায় দফায় সেই ছুটি বাড়িয়ে ৩১ আগস্ট পর্যন্ত করা হয়েছে।

পরীক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন