default-image

করোনাভাইরাসের কারণে এ বছর ইংল্যান্ডে জিসিএসই ও ‘এ’ লেভেল পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে। পরীক্ষার পরিবর্তে বিকল্প পদ্ধতিতে শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন করবেন শিক্ষকরা। এ বছর তাই শিক্ষকেরাই শিক্ষার্থীদের গ্রেড নির্ধারণ করবেন।

বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, শিক্ষকেরা এবার অ্যাসাইনমেন্ট, রচনা ও কোর্স চলাকালীন নেওয়া পরীক্ষার ফলাফলের সমন্বয় করে গ্রেড প্রদান করবেন। এই ফলাফল প্রকাশ করা হবে আগস্ট মাসের আগেই।

এ নিয়ে দেশটির স্কুলমন্ত্রী নিক গিব বলেন, সরকার সব থেকে ভালো পদ্ধতিটি বাছাইয়ের চেষ্টা করেছে। শিক্ষার্থীরা যাতে ন্যায্য ফলাফল পায়, তা নিশ্চিত করা হবে। এ অবস্থায় পরীক্ষায় বসার চেয়ে এটি সেরা পদ্ধতির একটি।

বিজ্ঞাপন
default-image

গত বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন এক টুইটে বলেন, মহামারির কারণে কোনো শিশুর পিছিয়ে পড়া উচিত নয়। এ কারণে সরকার একটি ন্যায্য ও সহনশীল পদ্ধতির মধ্য দিয়ে শিক্ষার্থীদের ফলাফল নির্ধারণের দিকে যাচ্ছে। এর ফলে শিক্ষার্থীরা তাদের শিক্ষাজীবনের পরের ধাপে পৌঁছে যেতে পারবে।

ইংল্যান্ডে ‘এ’ লেভেলের ফল ১০ আগস্ট এবং জিসিএসইর ফল ১২ আগস্ট প্রকাশ করা হবে।

পরীক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন