বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

৬ আগস্ট ‘ছায়া যুব সংসদ ২০২১’–এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছাবার্তা পাঠ করেন ইউনিস্যাবের প্রেসিডেন্ট শ্যামী ওয়াদুদ। উদ্বোধনে সভাপতিত্ব করেন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়–সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য নাহিম রাজ্জাক। তিনি ইউনিস্যাবের ট্রাস্টি বোর্ডের সহসভাপতি।

২০১৯ সালে বাংলাদেশে যুব ছায়া সংসদ প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হয়। তবে করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় এ বছর দ্বিতীয়বারের মতো যুব ছায়া সংসদ ভার্চ্যুয়ালি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

দেশে বিদ্যমান নানাবিধ সমস্যা নিয়ে তরুণদের চিন্তাভাবনা, মতামত এবং সেগুলো সমাধানে তাদের প্রস্তাবিত ধারণাকে সবার মধ্যে ছড়িয়ে দেওয়াই এ অনুষ্ঠানের মূল লক্ষ্য। অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় দিন দেশের বিভিন্ন প্রান্তের ছায়া সাংসদ তাঁদের নিজ নিজ এলাকার সমস্যা এবং তার সমাধানের ব্যাপারে বক্তব্য দেন।

রাজশাহী-৩ আসনের কল্পিত সাংসদ পাঠ্যবই পরিবর্তনের কথা বলেন। দিনাজপুর-৩ আসনের সাংসদ মাদ্রাসা শিক্ষাকে বাংলা ও ইংরেজির সঙ্গে অন্তর্ভুক্ত করার দাবি জানান। তারা ক্ষুদ্র জাতিসত্তার প্রতি সামাজিক বৈষম্য দূরীকরণের কথা বলেন। বিশেষত, নওগাঁ-৬ আসনের সাংসদ সাঁওতালদের মাতৃভাষাকে লিখিত ভাষায় প্রণয়ন এবং পাঠ্যবইয়ে অন্তর্ভুক্তির অনুরোধ করেন।

এ ছাড়া বিভিন্ন মন্ত্রণালয় প্রান্তিকদের ভূমি দখল, আইন ও বিচার ব্যবস্থার নিষ্ক্রিয় ভূমিকা, মাতৃত্বকালীন ভাতা দুই বছর থেকে পাঁচ বছরে উন্নীত করার কথা উল্লেখ করেন। তাঁরা গণমাধ্যম এবং গণমানুষের মতপ্রকাশের স্বাধীনতার কথা বিশেষভাবে উল্লেখ করেন এবং সমাজের চলমান অসংগতিগুলো নিরসনে কার্যকর বিভিন্ন সমাধানও তুলে ধরেন।

ছায়া যুব সংসদ ২০২১–এ দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ১৫০ জন তরুণ সংসদ সদস্য হিসেবে অংশগ্রহণ করেছেন, যাঁদের এ হাজারের বেশি অংশগ্রহণে ইচ্ছুক তরুণের মধ্য থেকে নির্বাচিত করা হয়েছে। মনোনীত ১৫০ আসনের মধ্যে ৩০টি সংরক্ষিত ছিল সমাজের অবহেলিত প্রান্তিক তরুণের জন্য, যাঁরা তাঁদের নির্বাচনী ইশতেহারে ও বক্তব্যে নিজেদের বঞ্চনা, সামাজিক বৈষম্যসহ নানাবিধ সামাজিক সমস্যা সবার সামনে তুলে ধরেছেন।

দুদিনের এ আয়োজনে ছিল স্থায়ী কমিটি সেশন, প্রস্তাবনা পেশ, বিল উত্থাপন, ভোট গ্রহণ, প্রেস ব্রিফিং, ফলাফল ঘোষণাসহ নানা রকম সব আয়োজন। জাতীয় সংসদের মতো একজন স্পিকার সেশনগুলো পরিচালনা করেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে একশনএইড বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর ফারাহ কবিরের উপস্থিতিতে এবারের আয়জনের সমাপ্তি ঘটে। বিজ্ঞপ্তি

উচ্চশিক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন