default-image

দেশের আটটি বিভাগীয় শহরে সরাসরি ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে এবার স্নাতক পর্যায়ে শিক্ষার্থী ভর্তি করবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। তবে ২০০ নম্বরের পরিবর্তে এবার ১০০ নম্বরের ভর্তি পরীক্ষা নেওয়া হবে।

গত ২০ অক্টোবর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিন’স কমিটির সভার এই সিদ্ধান্তকে আজ সোমবার অনুমোদন দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষাসংক্রান্ত কমিটি। তবে ভর্তি পরীক্ষার মানবণ্টন নিয়ে আজকের সভায় ভিন্ন সিদ্ধান্ত হয়েছে। মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিকের ফলাফল থেকে ২০ এবং মূল পরীক্ষার লিখিত ও বহুনির্বাচনী উভয় অংশে ৪০ নম্বর থাকবে।

বিজ্ঞাপন

সভায় অংশ নেওয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের সহ-উপাচার্য (শিক্ষা) এ এস এম মাকসুদ কামাল প্রথম আলোকে বলেন, ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে ডিন’স কমিটিতে যেসব সিদ্ধান্ত হয়েছিল, সেগুলোই পরীক্ষাসংক্রান্ত কমিটি অনুমোদন করেছে। তবে এই সভা থেকে পরীক্ষার মানবণ্টনের বিষয়ে ভিন্ন প্রস্তাব এসেছে। ডিন’স কমিটি বলেছিল, ভর্তি পরীক্ষা হবে ১০০ নম্বরের; এখানে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিকের ফলাফল থেকে ২০ এবং মূল পরীক্ষার লিখিত অংশে ৫০ ও বহুনির্বাচনী অংশে ৩০ নম্বর থাকবে। পরীক্ষাসংক্রান্ত কমিটির সভায় লিখিত ও বহুনির্বাচনী উভয় অংশে ৪০ নম্বর রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে। আর করোনা পরিস্থিতির কারণে পরীক্ষাগুলো হবে বিভাগীয় শহরে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সহ-উপাচার্য (প্রশাসন) মুহাম্মদ সামাদও জানান, এবারের ভর্তি পরীক্ষা দেশের আটটি বিভাগীয় শহরে হচ্ছে—এটি চূড়ান্ত।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এবারের ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নপত্রের ধরন ও শিক্ষার্থীদের প্রশ্নোত্তরের সময় নিয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়নি। ভর্তি পরীক্ষার আগেই বিশ্ববিদ্যালয়ের সংশ্লিষ্ট অনুষদগুলোর ডিনরা এগুলো নির্ধারণ করবেন বলে জানালেন সহ-উপাচার্য (শিক্ষা) এ এস এম মাকসুদ কামাল।

মন্তব্য করুন