default-image

অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ারুল কবিরস্টেট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের (এসইউবি) শিক্ষা কার্যক্রমের মূল উদ্দেশ্য হলো কর্মবাজারের চাহিদার সঙ্গে সংগতি রেখে মানসম্মত স্নাতক গড়ে তোলা এবং ধারাবাহিক গবেষণার মাধ্যমে নতুন জ্ঞান সৃষ্টি ও এর প্রয়োগ সাধনে রাষ্ট্র ও সমাজকে সহায়তা করা।

ইউজিসির নির্দেশনা অনুযায়ী, চার বছর পরপর পাঠ্যক্রম হালনাগাদ করতে হয়। কিন্তু এসইউবি এটি চার বছর পূর্তির আগেই করছে এবং কখনো কখনো তা বছর শেষেও করা হচ্ছে। শিক্ষার গুণগত মান আমাদের কাছে সবচেয়ে গুরুত্ব পায়। তাই গবেষণাভিত্তিক প্রায়োগিক শিক্ষা ও ভবিষ্যৎ কর্মক্ষেত্রভিত্তিক শিক্ষানবিশি কার্যক্রমের ওপর বিশেষ জোর দেওয়া হয়।

করোনাকালেও আমরা প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষার্থীদের জন্য একাধিক বহুজাতিক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে এক হয়ে ভার্চ্যুয়াল নিয়োগ পরীক্ষার ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি। তা ছাড়া কোভিডের মধ্যেও উল্লেখযোগ্যসংখ্যক বিদেশি শিক্ষার্থী অনলাইনের মাধ্যমে এসইউবিতে ভর্তি হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

নানা সহশিক্ষা কার্যক্রম আমাদের আরও সমৃদ্ধ করেছে। যেমন করপোরেট সেমিনার, শিল্পকারখানা পরিদর্শন, বিভিন্ন বক্তৃতার আয়োজন, ক্যারিয়ার পরিকল্পনা ও অন্যান্য বিষয়ভিত্তিক কর্মশালা, মিট দ্য এমপ্লয়ার, স্পট রিক্রুটমেন্ট প্রোগ্রাম, মুট কম্পিটিশন, আইসিটি কার্নিভ্যাল ইত্যাদি। কালচারাল ক্লাব, ডিবেটিং ক্লাব, বিজনেস ক্লাব, স্পোর্টস অ্যান্ড অ্যাডভেঞ্চার ক্লাবসহ সংগঠনগুলো ক্যাম্পাস মাতিয়ে রাখছে।

পাঠ্যক্রম ও সহশিক্ষা—এই দুইয়ের মধ্যে আমরা পার্থক্য করতে চাই না। বরং এই কার্যক্রমের মান ও দক্ষতাকে বৈশ্বিক পর্যায়ে নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে এর ক্যারিয়ার ডেভেলপমেন্ট সেন্টারকে (সিডিসি) একটি আন্তর্জাতিক মানের কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলার প্রচেষ্টা অব্যাহত। করোনা কেটে গেলে শিগগিরই বিদেশি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের নিয়ে এসইউবিতে সামার ক্যাম্প আয়োজনের প্রস্তুতি নিচ্ছি আমরা।

এশিয়া, ইউরোপ, যুক্তরাষ্ট্র ও অস্ট্রেলিয়ার উল্লেখযোগ্যসংখ্যক বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে এসইউবির একাধিক শিক্ষা সহযোগিতা কার্যক্রম চালু আছে, যার মধ্যে শিক্ষক ও শিক্ষার্থী বিনিময় অন্যতম। ইউরোপের একাধিক বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছ থেকে এসইউবির সঙ্গে যৌথ শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনার প্রস্তাবও আমরা পেয়েছি।

মেধা, যোগ্যতা, উচ্চতর ডিগ্রি, বৈশ্বিক অভিজ্ঞতা ইত্যাদি মানদণ্ডে এসইউবির শিক্ষকেরা এগিয়ে আছেন। তাই গবেষণা কার্যক্রমও দিন দিন আরও জোরদার হচ্ছে। আমাদের একাধিক শিক্ষক বর্তমানে সরকারের বিভিন্ন অনুদানের আওতায় গবেষণা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন। এসইউবি জার্নাল বর্ধিত কলেবরে নিয়মিত প্রকাশিত হচ্ছে। আমাদের কয়েকজন শিক্ষকের গবেষণা প্রবন্ধ বিভিন্ন খ্যাতিসম্পন্ন আন্তর্জাতিক জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে। সীমিত পরিসরে এসইউবির নিজস্ব অর্থায়নেও গবেষণা চলছে, যা ভবিষ্যতে আরও সম্প্রসারণের পরিকল্পনা আমাদের আছে।

বিজ্ঞাপন
উচ্চশিক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন