পাঠ্যপুস্তকে স্বাধীনতার ঘোষণা ও ঘোষণাপত্র অন্তর্ভুক্তিতে নিষ্ক্রিয়তা নিয়ে ২ ডিসেম্বর ওই রিট করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী উত্তম লাহিড়ী। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী নাহিদ সুলতানা, শাকিলা রওশন ও শাহজাহান আকন্দ মাসুম। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিপুল বাগমার।

রুলে ইতিহাস বিকৃতি রোধে ও পরবর্তী প্রজন্মকে প্রকৃত ইতিহাস জানাতে সংবিধানের ষষ্ঠ ও সপ্তম তফসিলে থাকা স্বাধীনতার ঘোষণা ও ঘোষণাপত্র বাধ্যতামূলকভাবে সব পর্যায়, মাধ্যম ও স্তরের পাঠ্যপুস্তকে অন্তর্ভুক্তিতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে নিষ্ক্রিয়তা কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চাওয়া হয়েছে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষাসচিব, কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব ও পুলিশের মহাপরিদর্শকসহ ১১ বিবাদীকে চার সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে বলে জানান আইনজীবী উত্তম লাহিড়ী।

উচ্চশিক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন