default-image

মুজিব শতবর্ষে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় উচ্চশিক্ষা ও গবেষণা এবং নতুন জ্ঞান সৃষ্টিতে আরও অবদান রাখবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর ভার্চ্যুয়াল অনুষ্ঠানমালার দ্বিতীয় দিনে আজ বুধবার সকালে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি তাঁর শুভেচ্ছা বক্তৃতায় এ আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, দেশের মুক্তিযুদ্ধ এবং বিভিন্ন গণতান্ত্রিক আন্দোলনে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অনেক ঐতিহ্য রয়েছে। দেশ গঠন এবং রাষ্ট্র পরিচালনায় এর অনেক শিক্ষক বিশেষ ভূমিকা রেখেছেন।

বিজ্ঞাপন

উপাচার্য ফারজানা ইসলাম অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। জাবি উপাচার্য বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে সাবেক উপাচার্য ও অধ্যাপকদের পরামর্শ এবং অভিমত বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণার উন্নয়নে বিশেষ অবদান রাখবে।

ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রের (টিএসসি) পরিচালক অধ্যাপক ড. আলমগীর কবীরের পরিচালনায় ভার্চ্যুয়াল স্মৃতিচারণামূলক অনুষ্ঠানে সহ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক আমির হোসেন, সহ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক মো. নূরুল আলম, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক শেখ মো. মনজুরুল হক, সিন্ডিকেট ও সিনেট সদস্য, বিভিন্ন অনুষদের ডিন, ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার রহিমা কানিজ, দেশ-বিদেশে অবস্থানরত সাবেক ও বর্তমান শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করেন।

ভার্চ্যুয়াল স্মৃতিচারণামূলক অনুষ্ঠানটি জুম প্ল্যাটফর্মের পাশাপাশি জনসংযোগ কার্যালয় জাবি ফেসবুকে সরাসরি প্রচার করা হয়।

মন্তব্য করুন