বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা বলেন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও স্থানীয়দের মতামতকে গুরুত্ব না দিয়ে সিটি করপোরেশন মাঠে মার্কেট নির্মাণের কাজ শুরু করেছে। সংস্থাটির যদি সৎ সাহস থাকত তবে অন্ধকারে নয়, দিনের বেলা কাজ করত। করপোরেশন নিজেদের স্বার্থ হাসিলের জন্য কারও মতামতকে গুরুত্ব দিচ্ছে না।

বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী সালেহ আতিক বলেন, ‘এই মাঠ ১৯৮৪ সালে রাষ্ট্রপতি আমাদের দিয়েছেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি স্থানীয়রাও নিয়মিত খেলাধুলা করেন এখানে। তাদের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ মাঠ উন্মুক্ত রেখেছে সব সময়। আর এই সব দরজা বন্ধ করে দিতে চাচ্ছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন।’

নৃবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী শামসুল হুদা বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ে নানা সংকট। একটি মাত্র খেলার মাঠে আমরা খেলাধুলায় চালিয়ে যাচ্ছিলাম। এখন সেটিও সিটি করপোরেশন জোর করে দখলে নিয়ে মার্কেট নির্মাণ করছে। মাঠে কোনো ধরনের মার্কেট বাণিজ্যিক স্থাপনা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীরা মেনে নেবে না।’

এর আগে মাঠে মার্কেট নির্মাণের প্রতিবাদ জানিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর মোস্তফা কামালের সঙ্গে দেখা করেন শিক্ষার্থীরা। এ সময় তাঁরা এ নির্মাণের কাজ থামানোর ব্যবস্থা নিতে তাঁকে অনুরোধ জানান। এ সময় প্রক্টর তাঁদের বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ থেকে সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হচ্ছে বলে আশ্বস্ত করেন।

উচ্চশিক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন