default-image

৭৬ জন শিক্ষার্থী নিয়ে ২০০৩ সালে যাত্রা শুরু করে ঢাকার ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি (ইউআইইউ)। শিক্ষা ও গবেষণায় গুণগত মানের কারণে সুনাম আছে এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের। ইউআইইউর বিজনেস স্কুল যুক্তরাষ্ট্রের অ্যাক্রেডিটেশন কাউন্সিল ফর বিজনেস স্কুল অ্যান্ড প্রোগ্রামসের (এসিবিএসপি) স্বীকৃতি পেয়েছে। এ ছাড়া বিবিএ ইন এআইএস ডিপার্টমেন্ট পেয়েছে চার্টার্ড ইনস্টিটিউট অব ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউন্ট্যান্টসের (সিমা) স্বীকৃতি। বিশ্ববিদ্যালয়ের ইঞ্জিনিয়ারিং স্কুলটি ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ (আইবি) কর্তৃক স্বীকৃত (অ্যাক্রেডিটেড)।

ঢাকার বাড্ডায় সবুজে ঘেরা বিশাল ক্যাম্পাস এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের। শিক্ষার্থীদের গুণগত শিক্ষা ও দক্ষতার কথা মাথায় রেখেই সাজানো হয়েছে পুরো প্রাঙ্গণ। আছে সমৃদ্ধ লাইব্রেরি, ১০০টি স্মার্ট ক্লাসরুম, ২০ বিঘা জায়গা নিয়ে খেলার সবুজ মাঠ, বিশাল মিলনায়তন, জিমনেসিয়াম, ক্যাফেটেরিয়া ও নামাজের ঘর। হাতে–কলমে পাঠদানের জন্য ইউআইইউতে সার্কিট ল্যাব, মেশিন অ্যান্ড পাওয়ার সিস্টেম ল্যাব, ডিজিটাল ডিজাইন ল্যাব, কম্পিউটার ল্যাব, মাইক্রোপ্রসেসর ল্যাব, হাইড্রোলিকস ল্যাব, সার্ভেয়িং ল্যাব, এসএম ল্যাব, ইলেকট্রনিকস ল্যাবসহ ৩০টি ল্যাব রয়েছে।

বিজ্ঞাপন

ভর্তিপ্রক্রিয়া

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) নীতিমালা অনুসরণ করে ইউআইইউতে ভর্তি করানো হয়। মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় আলাদা আলাদাভাবে ন্যূনতম ২.৫ গ্রেড পাওয়া শিক্ষার্থীরা স্নাতকে ভর্তির জন্য ফরম সংগ্রহ করতে পারেন। উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় জিপিএ–৫ এবং ইংরেজি মাধ্যমে ‘ও’ লেভেলে ন্যূনতম ২.৫ এবং ‘এ’ লেভেলে ন্যূনতম ২ থাকা সাপেক্ষে ‘ও’ লেভেলে চারটি ‘এ’ পাওয়া ছাত্রছাত্রীরা সরাসরি ভর্তি হতে পারবেন।

বিস্তারিত: admission.uiu.ac.bd

বৃত্তি বা বিশেষ সুবিধা

উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় জিপিএ– ৫ পাওয়া ছাত্রছাত্রীদের ২৫ শতাংশ এবং সব কটি বিষয়ে গ্রেড পয়েন্ট ৫ প্রাপ্তদের (গোল্ডেন জিপিএ–৫) ৫০ শতাংশ পর্যন্ত টিউশন ফি ছাড়ের ব্যবস্থা আছে। ইংরেজি মাধ্যমের শিক্ষার্থীরা ফলাফলের ভিত্তিতে ২৫ শতাংশ থেকে শতভাগ ছাড় পেতে পারেন। এ ছাড়া প্রতি ট্রাইমিস্টারে চূড়ান্ত পরীক্ষার ফলের ওপর ভিত্তি করে ১৫ শতাংশ ছাত্রছাত্রীকে ২৫ শতাংশ থেকে শতভাগ পর্যন্ত টিউশন ফি ছাড় দেওয়া হয়, বছরে টাকার অঙ্কে যার পরিমাণ ১১ থেকে ১২ কোটি টাকা। বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের বিনা মূল্যে পড়ার সুবিধা ছাড়াও এখানে ভাইবোন, ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠী সম্প্রদায়ের জন্য বিশেষ কোটা, সরকারি চাকরিজীবীদের জন্য টিউশন ফি ছাড়ের ব্যবস্থা আছে। ছাত্রছাত্রীরা ৪টি কিস্তির মাধ্যমে টিউশন ফি জমা দিতে পারেন। প্রয়োজনে সুদমুক্ত ঋণের ব্যবস্থা আছে।

এক নজরে

পাঠদানের বিষয়

স্নাতক পর্যায়ে: বিবিএ, বিবিএ ইন এআইএস (অ্যাকাউন্টিং ইনফরমেশন সিস্টেম), অর্থনীতি, কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল, তড়িৎ ও ইলেকট্রনিকস প্রকৌশল, পুরকৌশল, পরিবেশ ও উন্নয়ন অধ্যয়ন।

স্নাতকোত্তর পর্যায়ে: এমবিএ, এক্সিকিউটিভ এমবিএ, অর্থনীতি, উন্নয়ন অধ্যয়ন, কম্পিউটারবিজ্ঞান ও প্রকৌশল, আন্তর্জাতিক মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা।

এ ছাড়া সিসকো নেটওয়ার্কিং একাডেমি, সিডিআইপি, আইবিইআর, সিইআর ও পিইটিএর মাধ্যমে এখানে বেশ কয়েকটি ডিপ্লোমা ও শর্ট কোর্স পরিচালনা করা হয়।

বিজ্ঞাপন

ভর্তি ফি

খরচ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে: uiu.ac.bd/admission/tuition-fees-payment-policies/tuition-fees-waiver/

দেশ-বিদেশে ক্রেডিট স্থানান্তরের সুবিধা

যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, যুক্তরাজ্য, জাপান, পর্তুগাল, মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ডসহ বিভিন্ন দেশের বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে ইউআইইউর একাডেমিক সম্পৃক্ততা আছে। এ ছাড়া বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে ‘স্টুডেন্ট এক্সচেঞ্জ প্রোগ্রাম’ পরিচালনা করা হয়।

যোগাযোগ

ঠিকানা: ইউআইইউ ক্যাম্পাস, ইউনাইটেড সিটি, মাদানী অ্যাভিনিউ, বাড্ডা, ঢাকা–১২১২, ফোন: +৮৮ ০৯৬০৪-৮৪৮-৮৪৮

ওয়েবসাইট: uiu.ac.bd

প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা বলেন

default-image

ড. মো. ফয়সাল কবির, সহকারী অধ্যাপক, কম্পিউটারবিজ্ঞান, পেনসিলভানিয়া স্টেট ইউনিভার্সিটি, যুক্তরাষ্ট্র

আমি সৌভাগ্যবান, ইউআইইউ থেকে কম্পিউটারবিজ্ঞানে স্নাতক করে সেখানেই শিক্ষক হিসেবে যোগ দিয়েছিলাম। পরে যুক্তরাষ্ট্রে পিএইচডি করতে সুবিধা হয়েছে। প্রতি ট্রাইমিস্টারে ইউআইইউতে যে বৃত্তি দেওয়া হয়, তা শিক্ষার্থীদের অনুপ্রেরণা দেয়। আমাকেও একইভাবে সাহায্য করেছে।

default-image

আব্দুশ শাকুর, হেড অব কাস্টমার সাপ্লাই চেইন অ্যান্ড এক্সপোর্ট, নেসলে বাংলাদেশ লিমিটেড

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষাদান পদ্ধতি, শিক্ষকদের তত্ত্বাবধান, সুবিশাল ক্যাম্পাস আমাকে আজকের জায়গায় আসতে সহায়তা করেছে। সহশিক্ষা কার্যক্রমে উদ্বুদ্ধ করা হয়েছিল বলেই নেতৃত্বগুণ বিকশিত হয়েছে। ইউআইইউর স্নাতকেরা দেশসেরা করপোরেট প্রতিষ্ঠানগুলোতে সাফল্যের সঙ্গে কাজ করছেন।

default-image

সাবরিনা আবরার, শিক্ষার্থী, বিবিএ, নবম সেমিস্টার

ইউআইইউতে ভর্তি হওয়ার পেছনে আমার লক্ষ্যই ছিল ফলাফলের ভিত্তিতে বৃত্তির সুযোগটা নেওয়া; যেন মা-বাবার ওপর চাপ কম পড়ে। বিজ্ঞান বিভাগ থেকে বিবিএতে পড়তে আসায় ভেবেছিলাম অনেক কঠিন মনে হবে। কিন্তু শিক্ষকেরা শুরু থেকে যেভাবে যত্নসহকারে পড়িয়েছেন, তাতে শতভাগ বৃত্তি পাওয়া আমার জন্য সহজ হয়ে গেছে।

বিজ্ঞাপন
উচ্চশিক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন