default-image
বিশ্বের ধনী দেশগুলোর অন্যতম জার্মানি। তথ্যপ্রযুক্তিতে অগ্রসরমাণ এই দেশ শিক্ষাসহ নানা দিক দিয়ে ইউরোপের শীর্ষস্থানীয়। বিশেষ করে দেশটির শিক্ষাব্যবস্থা অত্যন্ত আধুনিক ও যুগোপযোগী। রয়েছে বিশ্বের অনেক নামীদামি বিশ্ববিদ্যালয়। জার্মানির বিভিন্ন উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ২০ লাখের মধ্যে ১২ শতাংশের বেশি বিদেশি শিক্ষার্থীর পড়াশোনা করেন। জার্মানিতে পড়াশোনা নিয়ে তৃতীয় পর্ব পড়ুন আজ

প্রথম কাজ হচ্ছে জার্মান দূতাবাস, ঢাকার ওয়েবসাইট ভিজিট করা। সেখানে স্টুডেন্ট ভিসার আবেদনের জন্য চেকলিস্ট দেওয়া থাকে। এখানে কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে জার্মান ব্যাংকে নিজের নামে অ্যাকাউন্ট করে সেখানে ১০ হাজার ২৩৬ ইউরো (আনুমানিক ১০ লাখ টাকা) জমা দিতে হবে।

নিচের লিংকে গেলে আপনি জার্মান ব্যাংক ওয়েব অ্যাড্রেস পাবেন, যেখানে অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন। www.deutsche-bank.de/pfb/content/pk-konto-und-karte-international-students.html। এই টাকা শিক্ষার্থীর নিজের অ্যাকাউন্টেই জমা থাকবে। শুধুই দেখানো যে জার্মানিতে আপনি নিজের খরচ মেটাতে পারবেন। এ ক্ষেত্রে জার্মান দূতাবাস, ঢাকার ওয়েবসাইটে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খোলা থেকে শুরু করে ইউরো জমা দেওয়ার বিস্তারিত পদ্ধতি দেওয়া আছে। যেকোনো তথ্যজনিত সাহায্য লাগলে দূতাবাস আন্তরিকতার সঙ্গে সাহায্য করে। সরাসরি অ্যাপয়েন্টমেন্ট নিতে পারেন অথবা ই–মেইল বা ফোনেও কথা বলে নিতে পারেন।

বিজ্ঞাপন
default-image

দ্বিতীয়ত, আপনাকে জার্মান দূতাবাস, ঢাকার কিছু মার্ক করা হেলথ ইনস্যুরেন্স কোম্পানি থেকে ইনস্যুরেন্স করিয়ে নিতে হবে। কোম্পানিভেদে তিন হাজার থেকে সাত হাজার টাকা পর্যন্ত লাগতে পারে। দূতাবাসের ওয়েবসাইটে সার্চ দিলে ইনস্যুরেন্স কোম্পানির তালিকাগুলো পাবেন। এই লিংকে https://dhaka.diplo.de/blob/2076266/9039af9439ded85def48d5c30da77589/krankenversicherungenliste-data.pdf গেলে ইনস্যুরেন্স কোম্পানির তালিকা পাবেন।
এবার চেকলিস্ট অনুযায়ী কাগজপত্র প্রস্তুত করে ওয়েবসাইট থেকে অনলাইনের মাধ্যমে অ্যাপয়েন্টমেন্টের তারিখ নিয়ে নিন।
অ্যাপয়েন্টমেন্টের জন্য নিচের ঠিকানায় ক্লিক করুন
https://service2.diplo.de/rktermin/extern/choose_realmList.do?locationCode=dhak&request_locale=en
নিচের লিংকে গেলে চেকলিস্ট দেখতে পাবেন।
https://dhaka.diplo.de/blob/2130280/1f1e41c757375bae4749493f62f47e2d/checklist-studenten-2020-data.pdf
মূল কাগজপত্র এক সেট সাজিয়ে সঙ্গে ভিসার জন্য আবেদনপত্র (অনলাইন ফরম)
https://videx-national.diplo.de/videx/visum-erfassung/#/videx-langfristiger-aufenthalt
অথবা (অফলাইন ফরম)
https://dhaka.diplo.de/blob/2081380/d7f0cecc3a5d78522cf3c035d2942c62/antrag-d-visa-data.pdf
দুই সেট পূরণ করে স্বাক্ষর করতে হবে। এ ছাড়া চেকলিস্ট অনুযায়ী সব কাগজ দুই সেট ফটোকপি করে সাজাতে হবে। আবেদনপত্রের সঙ্গে নিচের ফরম্যাটে পাসপোর্ট ছবি সংযুক্ত করতে হবে।https://www.germany.info/blob/929404/6e3eee9fd4d86e16aaefe0e92d809332/visa-photo-examples-data.pdf
সঙ্গে নিতে হবে ৩২ হাজার মতো টাকা, যার মধ্যে ৭৫ ইউরো (আনুমানিক সাড়ে সাত হাজার টাকা) ভিসা আবেদনের জন্য এবং নগদ ২৪ হাজার টাকা আপনার সার্টিফিকেটগুলো ভেরিফিকেশনের জন্য।

default-image

ভিসা ইন্টারভিউয়ের ১০ থেকে ১৫ মিনিট জীবনের খুবই গুরুত্বপূর্ণ সময়। খুব মাপকাঠি বজায় রেখে প্রশ্নকর্তার সব প্রশ্নের উত্তর মার্জিতভাবে দিয়ে তাঁকে আশ্বস্ত করতে হবে জার্মানিতে পড়াশোনা করাই আপনার একমাত্র উদ্দেশ্য। মনে রাখতে হবে, তিনি আপনার ভিসা ইচ্ছা করলে তুচ্ছ কারণ দেখিয়ে বাতিল করে দিতে পারেন। প্রশ্নকর্তার সঙ্গে প্রশ্নোত্তর পর্ব শেষ করে যদি সব কাগজ ঠিকঠাক থাকে এবং তিনিও আপনার ব্যাপারে সন্তুষ্ট হন, তখন তিনি আপনার মূল কাগজপত্র ফিরিয়ে দিয়ে ফটোকপি করা কাগজগুলো রেখে দেবেন।

বিজ্ঞাপন

এরপরে আপনার অপেক্ষার পালা। সবকিছু ঠিক থাকলে আশা করি সর্বোচ্চ ৪০ দিনের মধ্যে তিন মাসের জন্য জার্মানির ভিসা আপনি পেয়ে যাবেন। হতাশ হওয়ার কিছু নেই। পরবর্তী সময়ে জার্মানিতে আসার পরে হোম অ্যাড্রেস কনফারমেশন, সিটি রেজিস্ট্রেশন, ভার্সিটি ইনরলমেন্ট কনফারমেশন, জার্মান হেলথ ইনস্যুরেন্স, ব্লক করা টাকার আপডেটেড ডকুমেন্টস দেখিয়ে এক থেকে দুই বছরের জন্য ভিসা পাবেন নিশ্চিন্তে পড়াশোনা, গবেষণা ও পার্টটাইম জব করার জন্য। চলবে...

আগামীকাল পডুন: জার্মানিতে স্কলারশিপের জন্য যা করতে হবে

লেখক: গবেষক (প্রফেসরশিপ), মার্সেবুর্গ ইউনিভার্সিটি অব অ্যাপ্লায়েড সায়েন্স, হালে, জার্মানি। mahbub_chkbd@yahoo.com

মন্তব্য করুন