default-image

ফেসবুকের নতুন একটি প্রাইভেসি নীতিমালা অনুযায়ী এই সাইটটি ব্যবহারকারী ফেসবুক ব্যবহার বন্ধ রাখলেও তাঁর ইন্টারনেট উপস্থিতির সবখানেই নজরদারি বা অনুসরণ করতে পারে। ফেসবুক তার এই প্রাইভেসি নীতিমালায় সব ফেসবুক ব্যবহারকারীকেই স্বয়ংক্রিয়ভাবে সাইনআপ করিয়ে নেয়। আর এর ফলে ফেসবুকে প্রদত্ত তথ্য ছাড়াও ওয়েব জুড়ে ফেসবুক ব্যবহারকারীর অন্যান্য তথ্যও সংগ্রহ করতে পারে ফেসবুক এবং সেই তথ্য ইনস্টাগ্রামের মতো ফেসবুকের অন্যান্য সাইটেও ব্যবহার করে। দ্য ইনডিপেনডেন্টের এক খবরে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
ফেসবুক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ফেসবুক ব্যবহারকারীর ওয়েব ট্র্যাক করলেও হোয়াটসঅ্যাপের সঙ্গে ফেসবুকের তথ্য বা ফেসবুকের তথ্য হোয়াটসঅ্যপে বিনিময় করে না।
গত বছরের নভেম্বর থেকেই এই প্রাইভেসির নীতিমালা কার্যকরের কথা বলেছিল ফেসবুক। এ বছরের জানুয়ারির শেষ সপ্তাহ থেকে এই নীতিমালা কার্যকর শুরু করেছে প্রতিষ্ঠানটি। ফেসবুক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, নতুন নীতিমালার বিষয়টি ব্যবহারকারীদের নোটিফিকেশন, মেইলের মাধ্যমে পরিবর্তন কার্যকর করার বিষয়টি জানানো হয়েছে।
নজরদারি প্রসঙ্গে ফেসবুকের ভাষ্য, ব্যক্তির পছন্দের বিজ্ঞাপন দেখাতে এ তথ্য ব্যবহার করা যাবে। ব্যবহারকারী যে ধরনের বিজ্ঞাপন দেখতে চান না তা দেখিয়ে তাকে বিরক্ত না করার লক্ষ্যে এই নীতিমালা তৈরি করেছে ফেসবুক। বিজ্ঞাপন হচ্ছে ফেসবুকের আয়ের মূল উৎস।

বিজ্ঞাপন
প্রযুক্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন