default-image

যুক্তরাষ্ট্রের স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটির একটি স্মার্ট টয়লেটের প্রোটোটাইপ তৈরি করেছেন, যা রোগ শনাক্ত করতে পারে। এ টয়লেটে যুক্ত থাকা সেন্সর ও ক্যামেরা বর্জ্য পরীক্ষা করে বিভিন্ন ফল জানাতে পারে। পুরো প্রক্রিয়াটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে সম্পন্ন হয় বলে এতে ঝামেলা কম।

গবেষকেরা দাবি করছেন, ডিভাইসটি এমন ব্যক্তিদের জন্য বিশেষভাবে আকর্ষণীয় হতে পারে, যাঁরা জিনগতভাবে কিছু সমস্যা যেমন আন্ত্রিক সিনড্রোম, প্রোস্টেট ক্যানসার বা কিডনি সমস্যার ঝুঁকিতে থাকেন। তাঁদের জন্য এটি ভালো সমাধান হতে পারে।

স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটির গবেষক সঞ্জীব স্যাম বলেছেন, ‘আমাদের ধারণাটি ১৫ বছরের পুরোনো। এটা নিয়ে অনেকেই হাসাহাসি করেছিল। এতে সাধারণ টয়লেটের মধ্যেই বিভিন্ন গ্যাজেট যুক্ত করা হয়। এসব যন্ত্র বা বিভিন্ন প্রযুক্তির সমন্বয়ে মোশন সেন্সিং ব্যবহার করে কয়েক ধরনের পরীক্ষা করা হয়। এতে মূত্র ও বর্জ্য দুই ধরনের পরীক্ষা করার সুযোগ থাকে।’

গবেষকেরা বলেন, ‘ফিঙ্গারপ্রিন্টের মতোই মানুষের অ্যানাল প্রিন্ট আইডি অনন্য। টয়লেটে ক্ষুদ্র স্ক্যানার থাকে, যা নিতম্ব স্ক্যান করে। এর মূল উদ্দেশ্য থাকে নিখুঁত ও একেবারে ব্যক্তিগত স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা যেতে পারে। এর বাইরে ফ্ল্যাশ করার সময় ফিঙ্গারপ্রিন্টও পড়া যেতে পারে।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন