default-image

মার্কিন প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান অ্যাপলকে নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বীরা নানা কথা বলে। তাই বলে ‘লাইফস্টাইল’ কোম্পানি? প্রথমবারের মতো অ্যাপলকে ‘লাইফস্টাইল’ কোম্পানি হিসেবে সম্বোধন করলেন চিপ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ইনটেলের নতুন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা প্যাট জেলসিংগার। আগামী মাসে ইনটেলের প্রধান নির্বাহীর দায়িত্ব বুঝে নেবেন তিনি। তার আগেই অ্যাপলকে ‘খোঁচা’ দিয়ে রাখলেন।

‘ওরেগনিয়ান’ নামের যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় একটি পত্রিকাকে উদ্ধৃত করে প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট দ্য ভার্জ জানিয়েছে, সম্প্রতি কর্মীদের নিয়ে একটি বৈঠক করেছেন জেলসিংগার। সেখানে তিনি বলেছেন, ‘কুপারটিনোর একটি লাইফস্টাইল কোম্পানির যেকোনো সম্ভাব্য পণ্যের চেয়ে পিসি ইকোসিস্টেমে আমাদের আরও উন্নত পণ্য সরবরাহ করতে হবে।’ তিনি মূলত কুপারটিনোর কোম্পানি বলতে অ্যাপলকেই বুঝিয়েছেন।

গত নভেম্বর মাসে অ্যাপল কর্তৃপক্ষ ইনটেলের সঙ্গে দীর্ঘদিনের সম্পর্ক চুকিয়ে ম্যাকের জন্য নিজস্ব প্রসেসর ব্যবহারের ঘোষণা দেয়।

বিজ্ঞাপন

জেলসিংগার বলেছেন, ‘ভবিষ্যতে আমাদের আরও বেশি ভালো করতে হবে।’
অ্যাপল যখন নিজস্ব সিলিকনভিত্তিক প্রসেসর তৈরির ঘোষণা দেয়, তখন অনেকেই আশ্চর্য হন। নভেম্বরে এম ওয়ান নামের প্রসেসরযুক্ত ম্যাকবুক এয়ার, ম্যাকবুক প্রো, ম্যাক মিনির ঘোষণা দেয় অ্যাপল। অল্প সময়ের মধ্যেই অ্যাপলের নিজস্ব প্রসেসরযুক্ত ল্যাপটপ বাজারে দারুণ প্রশংসা পায়। এর উত্তাপ গিয়ে পড়ে ইনটেলের ওপর।

অ্যাপলের পক্ষ থেকে অবশ্য পুরোপুরি ইনটেল প্রসেসর ব্যবহার ছেড়ে দেওয়ার কথা বলা হয়নি। তবে আগামী কয়েক বছরে ইনটেলের ওপর তাদের নির্ভরতা কমবে, তা সহজেই বোঝা যায়।

ফেব্রুয়ারিতে ইনটেলের দায়িত্ব নেওয়ার পর জেলসিংগারকে দারুণ চ্যালেঞ্জের মুখ পড়তে হবে। শুধু অ্যাপল নয়, ইনটেলকে চ্যালেঞ্জ দেবে আরেক চিপ নির্মাতা এএমডিও। জেলসিংগার এর আগে ভিএমওয়্যারের প্রধান নির্বাহী হিসেবে কাজ করেছেন। এ ছাড়া ইনটেলে তাঁর ৩০ বছরের কাজের অভিজ্ঞতা রয়েছে। বাজারে নতুন চ্যালেঞ্জ তিনি নিতে পারবেন কি না, তা সময়ই বলে দেবে।

প্রযুক্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন