বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বিজয়ীদের জন্য ৪০ হাজার ডলারের বেশি মূল্যের পুরস্কার থাকবে। এবারের আয়োজনটিতে যুক্ত হওয়া যাবে https://ibcol2021.com লিংকটিতে ভিজিট করে।
তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ বলেন, দেশে অন্য যেসব শ্রমনির্ভর অর্থনীতি আছে, তার সঙ্গে সঙ্গে একটি জ্ঞানভিত্তিক ও প্রযুক্তিনির্ভর অর্থনীতিও গড়ে উঠবে। সরকার সে পরিকল্পনা নিয়েই এগোচ্ছে এবং এর অংশ হিসেবে সরকার ব্লকচেইন প্রযুক্তি বেছে নিয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিশ্বে এখন আলোচিত বিষয় হচ্ছে তথ্যের নিরাপত্তা। ফেসবুকের মতো একটি প্রতিষ্ঠান কয়েক ঘণ্টার জন্য বন্ধ ছিল। কোনো প্রতিষ্ঠানই শক্ত করে বলতে পারে না যে তারা মানুষের তথ্যের শতভাগ নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পারছে। এ জন্য সবাইকে সাবধান হতে হবে এবং নতুন প্রযুক্তি গ্রহণ করতে হবে।

বাংলাদেশে ব্লকচেইনের ব্যবহার সম্পর্কে জুনাইদ আহমেদ বলেন, তথ্যের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা এবং নির্ভুল তথ্য সংরক্ষণ করার জন্য সরকার ব্লকচেইন প্রযুক্তি ব্যবহার করা শুরু করেছে। সরকার জাতীয় ব্লকচেইন স্ট্র্যাটেজি করেছে। তিনি সরকারের পাশাপাশি ব্লকচেইনকে উৎসাহিত করতে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

আন্তর্জাতিক ব্লকচেইন অলিম্পিয়াডের চেয়ারম্যান হাবিবুল্লাহ এন করিমের সঞ্চালনায় সংবাদ সম্মেলনে আরও বক্তব্য দেন বিসিসির নির্বাহী পরিচালক মো. আবদুল মান্নান, ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক মোহাম্মদ কায়কোবাদ, আইসিটি বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সচিব খন্দকার আজিজুল ইসলাম এবং হংকং ব্লকচেইন সোসাইটির প্রেসিডেন্ট লরেন্স মা।

প্রযুক্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন