বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (২ সেপ্টেম্বর) রাজধানীতে ওয়ালটন করপোরেট অফিসে ‘ইউরোপে এক দিনে ২ দশমিক ৪৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের টিভি রপ্তানি’ শীর্ষক উদ্‌যাপন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে জানানো হয়, বড়দিনের উৎসব ঘিরে ১ সেপ্টেম্বর জার্মানি, গ্রিস, ক্রোয়েশিয়া, রোমানিয়া ও পোল্যান্ডে ২ দশমিক ৪৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের টেলিভিশন রপ্তানির চূড়ান্ত আদেশ পেয়েছে ওয়ালটন, যা দেশের টেলিভিশন রপ্তানি খাতে ওয়ালটনের এক নতুন রেকর্ড। ইউরোপে ওয়ালটন টিভি রপ্তানির এই বিশাল সাফল্য উদ্‌যাপন উপলক্ষে অনুষ্ঠানে একটি বিশাল কেক কাটা হয়।
এ সময় স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব মেনে উপস্থিত ছিলেন ওয়ালটন হাইটেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর নজরুল ইসলাম সরকার, এমদাদুল হক সরকার ও ইভা রিজওয়ানা নিলু, ওয়ালটন প্লাজা ট্রেডসের চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার মোহাম্মদ রায়হান, ওয়ালটনের চিফ মার্কেটিং অফিসার ফিরোজ আলম, ওয়ালটনের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর এসএম জাহিদ হাসান ও আমিন খান, ওয়ালটন ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস ইউনিট (আইবিইউ) শাখার প্রেসিডেন্ট এডওয়ার্ড কিম, ওয়ালটন টিভির চিফ বিজনেস অফিসার (সিবিও) প্রকৌশলী মোস্তফা নাহিদ হোসেন, ওয়ালটন এসির সিবিও তানভীর রহমান, ওয়ালটন ফ্রিজের সিবিও প্রকৌশলী আনিসুর রহমান মল্লিক, ইউরোপে ওয়ালটনের হেড অব বিজনেস প্রকৌশলী তাওসীফ আল মাহমুদ প্রমুখ, রোমানিয়ায় দায়িত্বপ্রাপ্ত ওয়ালটন আইবিইউ শাখার ভাইস প্রেসিডেন্ট সাঈদ আল ইমরান, ক্রোয়েশিয়ায় দায়িত্বপ্রাপ্ত ওয়ালটন আইবিইউ শাখার আমিনুল ইসলাম প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে ওয়ালটন টিভির সিবিও প্রকৌশলী মোস্তফা নাহিদ হোসেন বলেন, এ বছর ইউরোপের বাজারে এক দিনেই ২ দশমিক ৪৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের টিভি রপ্তানির আদেশ পেয়েছে ওয়ালটন, যা সত্যিই আশাতীত।

ইউরোপে ওয়ালটনের হেড অব বিজনেস প্রকৌশলী তাওসীফ আল মাহমুদ জানান, ইউরোপে ২০২০ সালে আগের বছরের চেয়ে ১০ গুণ বেশি টিভি রপ্তানি করেছে ওয়ালটন। আর ২০২০ সালের মোট রপ্তানি এ বছরের প্রথম পাঁচ মাসে (জানুয়ারি থেকে মে) ছাড়িয়ে গেছে।

রোমানিয়ায় দায়িত্বপ্রাপ্ত ওয়ালটন আইবিইউ শাখার ভাইস প্রেসিডেন্ট সাঈদ আল ইমরান বলেন, ওইএম পদ্ধতির পাশাপাশি এ বছর রোমানিয়ায় ওয়ালটন ব্র্যান্ডের নামেই টিভি রপ্তানি হচ্ছে।

ক্রোয়েশিয়ায় দায়িত্বপ্রাপ্ত ওয়ালটন আইবিইউ শাখার আমিনুল ইসলাম বলেন, ভৌগোলিক দিক থেকে ক্রোয়েশিয়া ওয়ালটনের জন্য সুবিধাজনক ও গুরুত্বপূর্ণ বাজার। এখান থেকে মধ্য ইউরোপ ও বলকান অঞ্চলের দেশগুলোয় পণ্য রপ্তানি বাণিজ্যের পথ অনেক সুগম হবে।
বিজ্ঞপ্তি

প্রযুক্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন