default-image

আগামী বছর থেকে বিনা মূল্যে ইয়াহু মেইল ব্যবহারকারীদের জন্য স্বয়ংক্রিয় মেইল ফরোয়ার্ড সুবিধা বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। ইয়াহু কর্তৃপক্ষ বলছে, হ্যাকিং প্রচেষ্টা কমানোর উদ্যোগ হিসেবে এ ব্যবস্থা নিচ্ছে তারা।

২০১৭ সালে ইয়াহু মেইল সেবা কিনে নেয় ভেরিজন। তাদের তথ্য অনুযায়ী, কেবল ইয়াহু মেইল প্রো ব্যবহারকারীরা স্বয়ংক্রিয় মেইল ফরোয়ার্ড সুবিধা পাবেন। এ জন্য বছরে ৩৪ দশমিক ৯৯ মার্কিন ডলার খরচ করতে হবে।

বিজ্ঞাপন

বার্তা সংস্থা আইএএনএসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ১ জানুয়ারি থেকে বিনা মূল্যের ব্যবহারকারীদের ইয়াহু মেইলের ইনবক্স থেকে তৃতীয় পক্ষ বা থার্ডপার্টির কোনো ই–মেইল অ্যাকাউন্টে স্বয়ংক্রিয় মেইল যাবে না। প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট জেডডিনেট–এর প্রতিবেদনে বলা হয়, অটোমেটিক বা স্বয়ংক্রিয় ই–মেইল ফরোয়ার্ড করার সুবিধাটি অধিকাংশ ক্ষেত্রেই অপব্যবহার করা হয়। হ্যাকাররা প্রায় ক্ষেত্রেই স্বয়ংক্রিয় ই–মেইল হিসেবে নিজেদের মেইল ঠিক করে দেয় যাতে ব্যবহারকারীর সব ই–মেইলের কপি তাদের কাছে চলে যায়।

ইয়াহু মেইলের ইনবক্স থেকে জিমেইলে স্বয়ংক্রিয় মেইল ফরোয়ার্ড কেউ যদি করে রাখেন, তবে তা ১ জানুয়ারি থেকে বন্ধ হয়ে যাবে। অবশ্য ইয়াহু মেইল বক্সে ওয়েব ব্রাউজার থেকে মেইল দেখার সুবিধা চালু থাকবে।

ভেরিজন কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, তারা নিয়মিত তাদের পণ্য ও সেবা বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করে। বর্তমান নিরাপত্তা মানের নিরিখেই তা করা হয়। বাস্তবতা মেনে বিনা মূল্যের ইয়াহু অ্যাকাউন্ট থেকে অটোমেটিক মেইল ফরোয়ার্ড সুবিধাটি বন্ধ করে দিচ্ছে।

কয়েক বছর ধরে ধারাবাহিকভাবে ইয়াহু মেইল ব্যবহারকারী কমছে। গত মাসে ইয়াহু কর্তৃপক্ষ বলেছে, ১৫ ডিসেম্বর থেকে তারা ইয়াহু গ্রুপস বন্ধ করে দিচ্ছে। ২০০১ সালে ইয়াহুর এ গ্রুপ সেবা চালু হয়। কিন্তু বর্তমানে রেডিট, গুগল ও ফেসবুক গ্রুপের সঙ্গে আর পেরে উঠছে না প্রতিষ্ঠানটি।
২০১৭ সালে ৪৮০ কোটি মার্কিন ডলারে ইয়াহুর ইন্টারনেট ব্যবসা কিনে নেয় যুক্তরাষ্ট্রের ওয়্যারলেস টেলিকম প্রতিষ্ঠানটি।

মন্তব্য পড়ুন 0