default-image

অনেকেই উঁচুতে উঠতে ভয় পান। উচ্চতাভীতিকে আর্কোফোবিয়া বলা হয়। এ সমস্যা দূর করতে অটোমেটেড ভার্চ্যুয়াল রিয়্যালিটি (ভিআর) ভিত্তিক সাইকোলজিক্যাল থেরাপি দারুণ কাজে লাগতে পারে। সাম্প্রতিক এক গবেষণায় এ তথ্য উঠে এসেছে। আইএএনএসের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

গবেষণাসংক্রান্ত নিবন্ধ দ্য ল্যানসেট সাইক্রিয়াট্রি সাময়িকীতে প্রকাশিত হয়েছে।

যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকেরা এ গবেষণা চালান। গবেষণায় অংশ নেওয়া ব্যক্তিদের নিয়ে ভিআরভিত্তিক বিভিন্ন কার্যক্রম চালানো হয়, যাতে ভয়কে জয় করার বিভিন্ন পদ্ধতি ছিল।

গবেষক ড্যানিয়েল ফ্রিম্যান বলেন, ইমার্সিভ ভিআর থেরাপি নিতে কোনো চিকিৎসকের প্রয়োজন পড়ে না। এতে মানসিক বাধা দূর করার নানা সম্ভাবনা রয়েছে।

পরীক্ষা করে দেখা গেছে, প্রচলিত মুখোমুখি থেরাপির চেয়ে ভিআর চিকিৎসায় কার্যকর, দ্রুত ও রোগীর কাছে গ্রহণ করার সম্ভাবনা বেশি। ভিআরের স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতিতে কম খরচে উন্নত চিকিৎসা দেওয়া যাবে।

গবেষণার সময় আর্কোফোবিয়া বা উঁচুতে উঠতে ভয় পান, কিন্তু মানসিক চিকিৎসা আগে নেননি—এমন ১০০ মানুষকে চিকিৎসা দেওয়া হয়। তাঁদের দুই ভাগে ভাগ করা হয়। এক দলকে দেওয়া হয় স্বয়ংক্রিয় ভিআর চিকিৎসা ও অন্যদের প্রচলিত পদ্ধতির পরামর্শ। প্রকৃতপক্ষে উচ্চতাভীতির আগে কোনো চিকিৎসা ছিল না।

দুই সপ্তাহ ধরে ৩০ মিনিট করে ছয়বার ভিআর চিকিৎসা দেওয়া হয়। ওই সময় তাঁদের ভিআর হেডসেট পরিয়ে নানা কার্যক্রম চালাতে বলা হয়। এ সময় তাঁদের সাহস দেওয়া হয়। পরীক্ষা শেষে ভিআরে চিকিৎসা নেওয়া রোগীরা ভয় কমে যাওয়ার কথা জানান।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0