>

‘এসইও শিখুন’ নামে ধারাবাহিকের আজ ষষ্ঠ পর্বে থাকছে কীভাবে গুগল সার্চ কনসোলের মাধ্যমে ইউআরএল নির্ধারণ করবেন? আপনার সব গুরুত্বপূর্ণ কনটেন্ট কি ক্রলার খুঁজে পায়? কোন কোন কারণে সার্চইঞ্জিন গুরুত্বপূর্ণ কনটেন্ট খুঁজে পায় না? 4xx কোড ও 5xx কোড সম্পর্কে।

গুগল সার্চ কনসোলের মাধ্যমে ইউআরএল নির্ধারণ করা

কিছু সাইট (বেশির ভাগ ক্ষেত্রে ই-কমার্স সাইটগুলো) একই কনটেন্টকে কিছু ইউআরএল প্যারামিটার ব্যবহার করে বিভিন্ন ইউআরএলকে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে দেখায়। আপনি যদি কোনো ই-কমার্স সাইটে শপিং করে থাকেন তবে দেখতে পাবেন যে তারা ফিল্টার করার জন্য প্রাইজ, ব্র্যান্ড, কালার, সাইজ ইত্যাদি প্যারামিটার ব্যবহার করে থাকে এবং প্রতিবারই যখন আপনি কোনো প্যারামিটার ধরে পরিবর্তন করবেন, তখনই ইউআরএল পরিবর্তন হবে।

https://www.example.com/products/women/dresses/green.html

https://www.example.com/products/women?category=dresses&color=green

https://example.com/shopindex.php?product_id=32&highlight=green+dress
&cat_id=1&sessionid=123$affid=43

এখন একটু ভাবুন তো, গুগল কোন ইউআরএল গুলোকে ক্রল করবে এবং কোন ইউআরএলকে ইনডেক্স করে সার্চে দেখাবে? গুগল এখানে নিজ থেকে সিদ্ধান্ত নেয় যে কোন ইউআরএলকে সার্চে দেখাবে। কিন্তু আপনি এখানে গুগল সার্চ কনসোলে ইউআরএল প্যারামিটার ফিচার দিয়ে বলে দিতে পারবেন যে কোন নির্দিষ্ট ইউআরএলটিকে সার্চে দেখাবে।

আপনার সব গুরুত্বপূর্ণ কনটেন্ট কি ক্রলার খুজেঁ পায়?

কীভাবে সার্চইঞ্জিনকে গুরুত্বহীন কনটেন্ট থেকে বিরত রাখতে হবে, তার কিছু পদ্ধতি সম্পর্কে জেনেছেন। এখন শিখুন কীভাবে অপটিমাইজড করলে গুগল বট আপনার গুরুত্বপূর্ণ পেজটিকে সহজে খুঁজে পাবে।

মাঝেমধ্যে সার্চইঞ্জিন নিজে নিজে আপনার সাইটের কিছু পেজ ক্রলিংয়ের মাধ্যমে খুঁজে পায়। কিন্তু অবশিষ্ট পেজগুলো বা কোনো নির্দিষ্ট অংশ কোনো কারণে খুঁজে নাও পেতে পারে। আপনাকে অবশ্যই নিশ্চিত হতে হবে যে আপনার ওয়েবসাইটের শুধু হোমপেজ ইনডেক্স হলে হবে না, যাতে সব পেজ ইনডেক্স হয়, যেগুলো আপনি চাচ্ছেন।

কী কী কারণে আপনার কনটেন্টটি সার্চইঞ্জিন খুঁজে পায় না, তার কিছু সম্ভাব্য বিষয় নিচে দেওয়া হলো:

  • আপনার কনটেন্ট যদি কোনো লগইন ফর্মের ভেতরে থাকে।
  • আপনি যদি কনটেন্টের জন্য কোনো অনুসন্ধান ফর্ম বা বক্স ব্যবহার করেন।
  • টেক্সট কনটেন্ট যদি নন-টেক্সট কনটেন্টের মধ্যে লুকানো থাকে।
  • সার্চইঞ্জিন যদি আপনার সাইটের নেভিগেশন অনুসরণ করতে না পারে।
  • আপনার যদি একটি ক্লিয়ার ইনফরমেশন স্ট্রাকচার না থাকে।
  • আপনি যদি সাইট ম্যাপ ব্যবহার না করেন।
  • ক্রলার যদি কোনো ধরনের ত্রুটি বা ভুল পায়, যখন এটি আপনার URL-এর এক্সেস নেওয়ার চেষ্টা করে।

এসইও করার সময় যেসব এরর কোড সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়, তার মধ্যে 4xx ও 5xx কোড অন্যতম।

4xx কোড: যখন সার্চ ইঞ্জিন ক্রলার আপনার ওয়েবসাইটের কনটেন্ট এক্সেস করতে পারে না আপনার ওয়েবসাইটের ইন্টারনাল কোনো সমস্যার কারণে, তখন তাকে 4xx errors বলে।

সবচেয়ে পরিচিত 4xx errors হলো ‘404 - Page not found’। এটা হতে পারে URL টাইপে ভুলের কারণে, কোনো ওয়েবপেজ ডিলিট করা, ব্রোকেন রিডাইরেক্ট ইত্যাদি।

5xx কোড: যখন সার্চইঞ্জিন ক্রলার সার্ভারের কোনো সমস্যার কারণে ওয়েবসাইটের কনটেন্ট এক্সেস করতে পারে না, তখন তাকে 5xx error বলে।

5xx error কে সার্ভারের সমস্যা হিসেবে চিহ্নিত করা হয়, যার অর্থ হলো যখন কোনো ইউজার বা সার্চইঞ্জিন ক্রলার কোনো কনটেন্ট পেজের এক্সেস না পায়।

আরও পড়ুন: 

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0