ক্লেমন স্কুল অব ফ্রেশনেস একটি নতুন প্ল্যাটফর্ম, যা স্বপ্নবাজ ও উদ্যমী তরুণদের উৎসাহ ও সাহায্য করতে চেষ্টা করছে। প্যাশনেট তরুণ, যাঁরা নিজেদের স্বপ্ন ও প্যাশনকে বাস্তবে রূপ দিয়ে চারপাশে ইতিবাচক পরিবর্তন আনতে চান, তাঁদের জন্যই ক্লেমন স্কুল অব ফ্রেশনেস-এর প্রথম সিজনের চ্যাপ্টার–২, যেখানে উদ্যোক্তা হতে চান বা স্টার্টআপ শুরু করতে, চান এমন তরুণদের জন্য থাকছে কিছু পরামর্শ। পাঠাওয়ের সহপ্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী হুসেইন মোহাম্মদ ইলিয়াস জানাবেন তাঁর অভিজ্ঞতা ও পরামর্শ।

উদ্যমী তরুণ, যাঁরা উদ্যোক্তা হতে চান, তাঁরা প্রায়ই ভাবেন যে স্টার্টআপ কীভাবে শুরু করা যায়? স্টার্টআপের আইডিয়া জেনারেশন কীভাবে হতে পারে? ইলিয়াস বলেন, নতুন ব্যবসায় বা স্টার্টআপ শুরু করতে গেলে অবশ্যই ভালো আইডিয়া লাগে, কিন্তু শুধু ভালো বা ইউনিক আইডিয়া থাকলেই উদ্যোগ সফল হয় না। একদম নতুন আইডিয়া নিয়ে মার্কেটে এলে প্রথমে মানুষকে সেই আইডিয়া সম্পর্কে ধারণা দিতে হয় বা শেখাতে হয়। তাই মাথায় রাখতে হবে যে নতুন আইডিয়াটা কাস্টমার কীভাবে গ্রহণ করবে বা তারা প্রস্তুত কি না এ রকম প্রোডাক্ট বা সার্ভিস গ্রহণ করতে।

বিজ্ঞাপন

মোহাম্মদ ইলিয়াস আরও বলেন, প্রথমেই মাথায় পৃথিবী বদলে ফেলার মতো আইডিয়া না এলেও সমস্যা নেই। শুরুর ছোট ছোট আইডিয়া দিয়ে পরিবর্তন আনতে পারলেই সফল হওয়া যাবে। নিজের পাঠাও উদ্যোগের অভিজ্ঞতা জানিয়ে ইলিয়াস বলেন, রাইড শেয়ারিংয়ের ধারণা বাংলাদেশের জন্য নতুন ছিল, তাই বেশ অনেকটা সময় ধরে মানুষকে বোঝাতে হয়েছিল, তারা কেন অন্যের মোটরসাইকেলে রাইড শেয়ার করবে। যেখানে সিএনজিচালিত অটোরিকশা আছে, রিকশা আছে, সেখানে একজন অচেনা মানুষের বাইকে চড়ে কোথাও যাওয়া কতটা নিরাপদ, সেটাও মানুষ চিন্তা করত। এসব চ্যালেঞ্জ অতিক্রম করে পাঠাও আজকের অবস্থানে এসেছে। এখন পাঠাও শুধু রাইড শেয়ারিং নয়, এর সঙ্গে আরও আছে কোরিয়ার, ফুড পার্সেলসহ ১২টি আইডিয়া। মানুষ পাঠাওয়ের আইডিয়াকে গ্রহণ করেছে, কারণ এটা নয় যে ইউনিক আইডিয়া বরং আইডিয়াটার ভ্যালু ছিল, যেটা মানুষের জীবনে পরিবর্তন এনেছে বা একটা সমস্যার সমাধান দিতে পেরেছে।

আইডিয়া যে সফল হয়েছে, সেটা বোঝা যাবে কীভাবে? যখন মানুষ তার পকেটের টাকা খরচ করে আপনার আইডিয়াকে কিনবে, তখনই সফল হবেন। মোহাম্মদ ইলিয়াস আজকের তরুণদের একটা টাস্ক দিয়ে বলেন, স্টার্টআপ শুরুর নতুন কোনো আইডিয়া থাকলে সেটা লিখে পাঠিয়ে দিন ক্লেমনের কাছে। আর কীভাবে স্টার্টআপ শুরু করতে হবে, তা নিয়ে পরামর্শ ও অভিজ্ঞতা জানতে চোখ রাখুন ক্লেমন এবং প্রথম আলোর ফেসবুক পেজ ও ইউটিউব চ্যানেলে।

  • অনুলিখন: ভক্ত সাগর ঊর্মি নিতু

প্রযুক্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন