default-image

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ফেসবুকে ফেরার সুযোগ পাবেন কি না, সে বিষয়ে আগামী ৫ মে নির্দেশনা জানাবে ফেসবুকের ওভারসাইট বোর্ড। আজ সোমবার এ কথা জানানো হয়েছে বলে মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনের প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়।

ওভারসাইট বোর্ডের পক্ষ থেকে গত মাসে জানানো হয়েছিল, অনির্দিষ্টকালের জন্য ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম থেকে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট স্থগিতের ব্যাপারে ৯ হাজারের বেশি মানুষের মতামত পেয়েছে তারা।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের প্ররোচনায় তাঁর সমর্থকেরা চলতি বছরের ৬ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাপিটল হিলে হামলা চালান। ২০২০ মার্কিন নির্বাচনের ফলাফল বদলানো ছিল তাঁদের উদ্দেশ্য। পরদিন ৭ জানুয়ারি অনির্দিষ্টকালের জন্য ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম থেকে ট্রাম্পকে নিষিদ্ধ করে ফেসবুক। সে সময় ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মার্ক জাকারবার্গ লিখেছিলেন, ‘এই সময়ে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে আমাদের সেবা ব্যবহার করতে দেওয়ার ঝুঁকি এক কথায় অত্যন্ত বেশি।’

ট্রাম্পকে হুমকি হিসেবে উল্লেখ করে একই ধরনের উদ্যোগ নেয় টুইটার ও ইউটিউব।

ট্রাম্পের ওপর বিদ্যমান নিষেধাজ্ঞা বলবৎ থাকবে কি না, সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে জানুয়ারি মাসের শেষভাগে ওভারসাইট বোর্ডের কাছে আবেদন করে ফেসবুক। ফেসবুক সে সময় বলেছিল, ঘটনার গুরুত্ব বিচারে স্বাধীন পর্যালোচনা হওয়া জরুরি।

ওভারসাইট বোর্ড ফেসবুকের পরিচালনা পর্ষদ থেকে পুরোপুরি স্বাধীন বলে দাবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমটির। ফেসবুকের কনটেন্ট-বিষয়ক সিদ্ধান্ত বদলানোর ক্ষমতা আছে এটির। অনেকে এটিকে ফেসবুকের আদালত বলে থাকেন।

বিজ্ঞাপন
প্রযুক্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন