default-image

ডিজিটাল ভুটান বিনির্মাণে বাংলাদেশের প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান ড্রিম ৭১ কাজ করছে। দেশটির প্রয়োজনীয় সফটওয়্যার ও তথ্যপ্রযুক্তির বিভিন্ন ক্ষেত্রে বাংলাদেশি প্রতিষ্ঠানকে সুযোগ দিচ্ছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী লোটে শেরিং।

ড্রিম ৭১ সূত্রে জানা গেছে, গতকাল বৃহস্পতিবার ভুটানের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে লোটে শেরিংয়ের সঙ্গে বাংলাদেশি সফটওয়্যার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ড্রিম ৭১-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক রাশাদ কবির এক বৈঠকে অংশ নেন। বৈঠকে ভুটানের প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব চেঞ্চো এবং ভুটান চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি মিস ফুব জ্যাম, ড্রিম-৭১–এর পক্ষে স্থানীয় বিক্রয় ব্যবস্থাপক নাজমুল গণি ও সহকারী ব্যবস্থাপক কাজি রুহুল আবরার উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে ভুটানের প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের অগ্রগতির প্রশংসা করেন। ডিজিটাল ভুটান নির্মাণে আন্তর্জাতিক কোম্পানির এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি। এর পাশাপাশি স্থানীয় সক্ষমতা উন্নয়নের ব্যাপারেও গুরুত্ব আরোপ করেন।

ড্রিম ৭১-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক বলেন, বাংলাদেশসহ ১০টি দেশে ড্রিম ৭১-এর সফটওয়্যার চলছে। নিজেদের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে ভুটান সরকারের কাজে সহযোগিতা করা হবে। ইতিমধ্যে দেশটির স্বাস্থ্য এবং তথ্য ও যোগাযোগমন্ত্রীর সঙ্গে এসব বিষয়ে বৈঠক হয়েছে।

গেম নির্মাতা প্রতিষ্ঠান হিসেবে ড্রিম ৭১ দেশে যাত্রা শুরু করলেও বর্তমানে এইচআর ব্যবস্থাপনা সফটওয়্যার থেকে শুরু করে বিভিন্ন ধরনের সফটওয়্যার তৈরিতে কাজ করছে।

ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ডা. লোটে শেরিং ১৯৯১ সালে বাংলাদেশের ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের ২৮তম ব্যাচের শিক্ষার্থী হিসেবে তাঁর মেডিকেল শিক্ষাজীবন শুরু করেন।

বিজ্ঞাপন
প্রযুক্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন