default-image

দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী এক যাত্রীকে ১১ লাখ ডলার দেওয়ার জন্য উবারকে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। উবারের বিরুদ্ধে অভিযোগ, বিভিন্ন সময়ে রাইড শেয়ারিং প্রতিষ্ঠানটির চালকেরা অন্তত ১৪ বার নিয়মবহির্ভূতভাবে দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী ওই নারী যাত্রীকে নিয়ে যাত্রা শুরু করতে অস্বীকৃতি জানান।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ‘দ্য গার্ডিয়ান’-এর খবরে বলা হয়, উবার এত দিন চালকদের ‘চুক্তিভিত্তিক’ উল্লেখ করে এসেছে। একে তো পূর্ণকালীন কর্মীদের মতো বেতন-ভাতা দেয়নি, তার ওপর চালকের ভুলের দায়ভার নিতেও অস্বীকৃতি জানিয়েছে। তবে ওই আদালত উবারকে দায়ভার নিতে হবে বলে রায় দিয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের সান ফ্রানসিস্কোর বে এরিয়ার দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী অধিবাসী লিসা আরভিং পথনির্দেশক হিসেবে সঙ্গে পোষা কুকুর নিয়ে চলেন। ২০১৮ সালে তিনি উবারের বিরুদ্ধে মামলা ঠুকে দেন। অভিযোগ ছিল, উবার চালকেরা হয় তাঁকে নিয়ে যাত্রা শুরু করতে রাজি হননি, কিংবা তাঁর সঙ্গে থাকা কুকুরের জন্য হয়রানি করেছেন। এতে বেশ রাত পর্যন্ত তাঁকে পথে পথে ঘুরে বেড়াতে হয়েছে। ফলে কাজে যেতে দেরি হয়েছে। এবং শেষমেশ চাকরিটাই হারান তিনি।

আরভিংয়ের দাবি, উবার চালকেরা দুবার তাঁকে মৌখিকভাবে হয়রানি করেন। এমনকি উবারের কাছে অভিযোগ জানানোর পরও চালকদের এমন বিদ্বেষমূলক আচরণ কমেনি বলে জানিয়েছেন তিনি।

আরভিংয়ের আইনজীবী ক্যাথেরিন ক্যাবালো সংবাদ পোর্টাল ইনসাইডারকে পাঠানো এক বিবৃতিতে বলেন, ‘রাইড শেয়ারিং বিপ্লবে আমেরিকানদের মধ্যে দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীরাই সবচেয়ে উপকৃত হয়েছে। তবে বড় প্রতিষ্ঠানগুলোর পক্ষপাতমূলক আচরণ বেশ দৃষ্টিকটু।’

বিজ্ঞাপন
প্রযুক্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন