জার্মান বেতার সংস্থা ডয়েচে ভেলে চলতি বছর নতুন রূপে ‘দ্য ববস—বেস্ট অব অনলাইন অ্যাক্টিভিজম’ পুরস্কার কার্যক্রম শুরু করেছে। এবার দেওয়া হবে ১১তম ববস পুরস্কার। গুরুত্বপূর্ণ পরিবর্তন হচ্ছে, এবার প্রথমবারের মতো ‘মত প্রকাশের স্বাধীনতা’ পুরস্কার দেবে ডয়েচে ভেলে৷ প্রতিযোগিতার বিভাগগুলোতেও পরিবর্তন এসেছে। শুধু বিচারকমণ্ডলী মিশ্র বিভাগগুলোতে চূড়ান্ত বিজয়ী নির্ধারণ করবেন৷ মিশ্র বিভাগগুলো হচ্ছে: সামাজিক পরিবর্তন, গোপনীয়তা ও তথ্য সুরক্ষা এবং শিল্প ও সংবাদমাধ্যম৷ খবর বিজ্ঞপ্তির।
ডয়েচে ভেলের মহাপরিচালক পেটাল লিমবুর্গ বলেছেন, ‘এতে ডয়েচে ভেলের মূল বিষয়গুলোকে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে৷ সেগুলো হচ্ছে বাকস্বাধীনতা এবং গণমাধ্যমের স্বাধীনতার প্রতি আমাদের অঙ্গীকার৷’
সমাজের সঙ্গে যুক্ত বিষয় নিয়ে কাজ করেন এমন ব্যক্তি বা উদ্যোগ ‘সামাজিক পরিবর্তন’ বিভাগে মনোনয়ন পেতে পারেন৷ ‘শিল্প ও সংবাদমাধ্যম’ বিভাগে সামাজিক বিষয় শৈল্পিকভাবে তুলে ধরা হয়েছে এমন প্রকল্প মনোনয়ন পেতে পারে৷ তবে উপস্থাপনা হতে হবে ডিজিটাল মাধ্যমে৷
বাংলা, আরবি, চীনা, জার্মান, ইংরেজি, ফরাসি, হিন্দি, ইন্দোনেশীয়, ফার্সি, পর্তুগিজ, রুশ, স্প্যানিশ, তুর্কি ও ইউক্রেনীয় ভাষায় অনলাইনে মনোনয়ন জমা দেওয়া যাবে আগামী ২১ মার্চ পর্যন্ত।
বিস্তারিত: http://thebobs.com/bengali
ফেসবুক এবং টুইটারে তথ্য পাওয়া যাবে #thebobs15 হ্যাশট্যাগে৷
পিপল’স চয়েস পুরস্কারের বিজয়ী নির্বাচন করা হবে অনলাইন ভোটের মাধ্যমে। আগামী ৯ এপ্রিল থেকে অনলাইন ভোটাভুটি শুরু হবে৷

বিজ্ঞাপন
প্রযুক্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন