জ্ঞান ও অনুধাবনমূলক প্রশ্ন  অংশ-১
প্রিয় শিক্ষার্থীরা, আজ ব্যবসায় পরিচিতি থেকে জ্ঞান ও অনুধাবনমূলক প্রশ্নোত্তর দেওয়া হলো।

অধ্যায়-১
জ্ঞানমূলক প্রশ্ন:
প্রশ্ন: ব্যবসা বলতে কী বোঝ?
উত্তর: কোনো ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান যখন মুনাফা অর্জনের লক্ষ্যে যে লেনদেন সমন্বয়ের কাজে ব্যাপৃত থাকে তাকেই ব্যবসা বলে।
প্রশ্ন: পর্যায়িতকরণ কী?
উত্তর: পণ্যকে তার প্রকৃতি অনুযায়ী বিভিন্ন ভাগে ভাগ করাকে বলে পর্যায়িতকরণ।
প্রশ্ন: প্রমিতকরণ কী?
উত্তর: পণ্যের মান নির্দিষ্টকরণকে বলে প্রমিতকরণ।
প্রশ্ন : শিল্প কত প্রকার ও কী কী?
উত্তর: শিল্প প্রধানত ৫ প্রকার। যথা: ১. প্রজননশিল্প; ২. সম্পদ উত্তোলনশিল্প; ৩. নির্মাণশিল্প;
৪. উৎপাদনশিল্প এবং ৫. সেবাশিল্প।
প্রশ: বাণিজ্য বলতে কী বোঝ?
উত্তর: বাণিজ্য হলো পণ্য বণ্টনকারী শাখা। ক্রেতা বা ভোক্তাদের কাছে পণ্য ও সেবা বণ্টনের জন্য প্রয়োজনীয় বিভিন্ন প্রকার কার্যাবলিকে বাণিজ্য বলে।
প্রশ: উৎপাদনশিল্প কাকে বলে?
উত্তর: কাঁচামাল প্রক্রিয়াজাত করে পরিণত পণ্য বা ব্যবহারযোগ্য তৈরির কাজকে উৎপাদনশিল্প বলে।
প্রশ: পর্যায়িতকরণ কাকে বলে?
উত্তর: বিক্রয়ের সুবিধার্থে অনেক সময় বিভিন্ন পণ্য সাইজ বা মান বা সংখ্যা অনুসারে বিভিন্ন ভাগে ভাগ করা হয়। তাকেই পর্যায়িতকরণ বলে।
অনুধাবনমূলক প্রশ্ন:
প্রশ: মুনাফা অর্জনকে ব্যবসায়ের মুখ্য উদ্দেশ্য বলা হয় কেন?
উত্তর: ব্যবসায়ীর ঝুঁকির মূল্য হলো মুনাফা । মুনাফা অর্জনের উদ্দেশে বশবর্তী হয়ে মানুষ ব্যবসায়ে নিয়োজিত হয়। সব ধরনের উৎপাদন, বণ্টন ও এগুলোর সহায়ক কার্যাবলির মূল উদ্দেশ্য মুনাফা অর্জন। সেই পরিপ্রেক্ষিতে বলা যায়, মুনাফা অর্জনই ব্যবসায়ের মুখ্য উদ্দেশ্য।
প্রশ: মিষ্টি ও বেকারি কোন শিল্পের অন্তর্গত?
উত্তর: মিষ্টি ও বেকারি উৎপাদনশিল্পের অন্তর্ভুক্ত। দুধ, ময়দা, চিনি, ডিম প্রভৃতি কাঁচামাল প্রক্রিয়াজাতকরণ করে মিষ্টি ও বেকারি উৎপাদন করা হয়। কাজেই এটি উৎপাদনশিল্প। ব্যবসায়ের তিনটি প্রধান উদ্দেশ্য হলো অর্থনৈতিক, সামাজিক ও মানবিক এবং জাতীয়। ব্যবসায়ীরা এ তিনটি উদ্দেশ্যের প্রতি লক্ষ রেখে ব্যবসা পরিচালনা করে থাকে।

অধ্যায়-২
জ্ঞানমূলক প্রশ্ন:
প্রশ্ন: ব্যবসায়িক পরিবেশ কাকে বলে?
উত্তর:ব্যবসায়ের সেসব বহিঃপারিপার্শ্বিক অবস্থাকে বোঝায়, যেগুলো ব্যবসায় বা ফার্মের প্রবর্তন ও কার্যকারিতাকে প্রভাবিত করে তাকে ব্যবসায়িক পরিবেশ বলে।
প্রশ্ন: অর্থনৈতিক পরিবেশ কাকে বলে?
উত্তর: জনগণের অভাব মোচনের উপকরণাদি সরবরাহের নিমিত্তে প্রাকৃতিক সম্পদ সংগ্রহকরণ, উৎপাদন ও বণ্টনের প্রচেষ্টায় অবিরত নিযুক্ত থেকে মানুষ যে পরিবেশ সৃষ্টি করে তাকে অর্থনৈতিক পরিবেশ বলে।

শিক্ষক, বীরশ্রেষ্ঠ মুন্সী আব্দুর রউফ পাবলিক কলেজ, ঢাকা

পরবর্তী অংশ ছাপা হবে আগামীকাল

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0