বিজ্ঞাপন
default-image

টুইটার ও ফেসবুক থেকে নিষিদ্ধ হওয়ার পর জানুয়ারিতেই নিজস্ব সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম চালুর ঘোষণা দিয়েছিলেন ট্রাম্প। এত দিন পর এসে সমর্থকদের সঙ্গে যোগাযোগের নিজস্ব মাধ্যম হিসেবে একটি ওয়েবসাইট চালু করেছেন তিনি। ‘ফ্রম দ্য ডেস্ক অব ডোনাল্ড জে ট্রাম্প’ নামের ওয়েবসাইটে নাম নিবন্ধন করে ট্রাম্পের বক্তব্য জানতে পারবেন অনুসারীরা। এখন পর্যন্ত এই প্ল্যাটফর্মটিতে কেবল ট্রাম্পের বক্তব্য পেশ করার সুযোগ আছে, অন্য কেউ মন্তব্য করতে পারবেন না।

ওভারসাইট বোর্ড কী

ফেসবুকের কনটেন্ট-বিষয়ক সিদ্ধান্ত পর্যালোচনার জন্য স্বাধীন কমিটি হিসেবে সাংবাদিক, মানবাধিকার কর্মী, আইনজীবী ও শিক্ষাবিদদের নিয়ে গঠন করা হয় ওভারসাইট বোর্ড। ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মার্ক জাকারবার্গের উদ্যোগে গঠিত হলেও স্বাধীন সত্তা হিসেবে কাজ করে বলে দাবি করা হয়। তবে এর পরিচালনার ব্যয়ভার ফেসবুকই বহন করে।

ফেসবুকের কনটেন্ট-বিষয়ক নেওয়া সিদ্ধান্ত বদলানোর ক্ষমতা আছে ওভারসাইট বোর্ডের। অনেকে এটিকে ‘ফেসবুকের সুপ্রিম কোর্ট’ বলে থাকেন। এই কমিটি এরই মধ্যে ৯টি আবেদন পর্যালোচনা করেছে।

প্রযুক্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন