default-image

ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, বর্তমান সরকারের প্রযুক্তিবান্ধব নীতির ফলে দেশে স্যামসাংসহ ১৪টি প্রতিষ্ঠান সব ধরনের মোবাইল সেট উৎপাদন করছে। এসব কারখানায় এখন ফোর–জি সেটও তৈরি হচ্ছে। ফলে মোবাইল সেট আমদানির প্রয়োজনীয়তা নেই। গতকাল মঙ্গলবার মুঠোফোন অপারেটরদের বৈশ্বিক সংগঠন জিএসএমএ ‘রাউন্ডটেবিল অন বাংলাদেশ অ্যাচিভিং মোবাইল-এনেভলড ডিজিটাল ইনক্লিউশন’ শীর্ষক আন্তর্জাতিক ভার্চ্যুয়াল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, বাংলাদেশ ১৯৮৯ সালে মুঠোফোন যুগে প্রবেশ করলেও মনোপলি ব্যবসার কারণে মুঠোফোন ছিল সাধারণ মানুষের নাগালের বাইরে। ১৯৯৭ সালে চারটি অপারেটরকে মুঠোফোন পরিচালনার লাইসেন্স প্রদানের মাধ্যমে মুঠোফোন সাধারণের নাগালে পৌঁছে দেওয়া হয়। তিনি আরও বলেন, ‘২০১৩ সালে থ্রিজি চালু করা অবধি মোবাইল প্রযুক্তি কেবল কথা বলার কাজেই ব্যবহৃত হতো।

বিজ্ঞাপন

এরপর ২০১৮ সালে ফোর–জি চালু হওয়ার পর আমরা প্রকৃত মোবাইল ইন্টারনেটের যুগে প্রবেশ করলাম। মাত্র তিন বছরে করোনা থাকার পরও আমাদের মোবাইল অপারেটররা দেশব্যাপী ফোর–জির সম্প্রসারণ করেছে।’ এর ব্যবহারের পরিধি বাড়াতে সরকার সব উদ্যোগ নেবে বলে মন্ত্রী উল্লেখ করেন।

মন্ত্রী বলেন, দেশের ৭০ শতাংশ করোনা রোগী ডিজিটাল পদ্ধতিতে ঘরে বসে চিকিৎসাসেবা নিয়েছেন। এর আগে দেশের তৃণমূল জনগোষ্ঠীর ডিজিটাল সেবা গ্রহণ নিশ্চিত করতে, বিশেষ করে করোনাকালে দেশের প্রত্যন্ত জনগোষ্ঠীর ডিজিটাল চিকিৎসাসেবা ও শিক্ষা নিশ্চিত করতে সবাইকে ফোর–জি নেটওয়ার্কের আওতায় আনার জন্য অপারেটরদের তাগিদ দেওয়া হয়।

প্রযুক্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন